সাবধান ! সোশ্যাল সাইটে আপনিও হচ্ছেন না তো ‘হানি ট্র‍্যাপ’-এর শিকার?

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : পাক গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের ‘সুন্দরী’ জালে জড়িয়ে গোপন তথ্য পাচারের অভিযোগে ভারতীয় বায়ুসেনার এক গ্রুপ ক্যাপ্টেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ‘হানি ট্র‍্যাপ’-এর এই ঘটনা প্রথমবার ঘটেনি। এর আগেও আইএসআইয়ের পক্ষ থেকে বেশ কয়েকজন আধিকারিক ও সেনা জওয়ানকে ফাঁসানো হয়েছে। প্রথমে তারা সোশ্যাল সাইটে বন্ধুত্ব করে, তারপর টাকা ও বিদেশে ঘোরার লোভ দেখিয়ে গোপনীয় তথ্য জেনে নেয়।

বায়ুসেনার গ্রুপ ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ

ডিফেন্স সাইবার এজেন্সি, ডিফেন্স স্পেস এজেন্সি ও একটি স্পেশাল অপারেশনস ডিভিশনের গোপন তথ্য পাচার করেছেন অরুণ মারওয়াহা নামের ওই ক্যাপ্টেন। এই অভিযোগে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল তাকে গ্রেফতার করেছে। সূত্রের খবর, আইএসআইয়ের এক এজেন্ট মহিলা পরিচয় দিয়ে সোশ্যাল সাইটে বন্ধুত্ব করেছিল মারওয়াহার সঙ্গে।


সাংসদ বরুণ গান্ধির বিরুদ্ধেও উঠেছিল অভিযোগ

ভারতীয় জনটা পার্টির (বিজেপি) সাংসদ বরুণ গান্ধি বিদেশি এসকর্ট মহিলা তথা দেহব্যবসায়ীদের তোলা ছবিতে ব্ল্যাকমেল হয়ে অস্ত্র নির্মাতাদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার করেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কার্যালয়ে (পিএমও) লেখা একটি চিঠিতে একথা বলা হয়েছিল। যদিও বরুণ গান্ধি বলেছিলেন, ‘আমি এধরণের হাস্যকর এবং বোকামিমূলক অভিযোগের কি উত্তর দেব? এই অভিযোগের কি কোনও প্রমান আছে? এর কোনও ভিত্তি নেই।’

পাঠানকোটেও ঘটেছিল এহেন ঘটনা

পাঠানকোট এয়ারফোর্স স্টেশনে নিযুক্ত এয়ারম্যান সুনীল কুমার একজন মহিলাকে ইমেইল মারফত তথ্য পাচারের দায়ে গ্রেফতার হয়েছিলেন। সুনীল টাকার লোভে মীনা রায়না নামের একটি ইমেইল একাউন্টে নিয়মিত তথ্য পাঠাতেন। পাঠানকোট এয়ারবেসের সাইবার টিম সুনীলের উপর লাগাতার নজরদারি চালানোর পর তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছিল।


জওয়ান সুবেদারও ফেঁসেছিলেন জালে

সেকেন্দ্রাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় সেনা জওয়ান নায়েব সুবাদার পাটন কুমার পোদ্দার পাকিস্তানের এক মহিলা গোয়েন্দার জালে ফেঁসে দীর্ঘ সময় ধরে নানা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাচার করেছিলেন। তথ্যের পরিবর্তে পাটন কুমারকে টাকা ও নিজের নগ্ন ছবি পাঠাতেন ওই মহিলা গোয়েন্দা। পাশাপাশি পাটনকে বিদেশ ঘোরানোর প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলল সে।


ঝাঁসিতেও ‘হানি ট্র‍্যাপ’

ববীনা ক্যান্টনমেন্টে নিযুক্ত সেনা চালক সুনীত কুমার ফেসবুকের মাধ্যমে আইএসআই এজেন্ট পুনম প্রকাশ ও রিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলেন। লোভের জালে জড়িয়ে সুনীত নানা তথ্য পাচার করেছিলেন।