খুশির জোয়ার আনতে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় উৎসব ঈদ

0

শেখ বাসির আলি, টিডিএন বাংলা: পৃথিবীর সবচেয়ে বড় উৎসব হল ঈদ । ধনী-গরিব, ছোট-বড়, পুরুষ-নারী, ভৌগোলিক ও ভাষাগত সকল কিছুকে ছাপিয়ে ঈদ মানুষের মধ্যে খুশির জোয়ার বয়ে আনে । নিছক ভোগের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় এই ঈদ। ধনী- গরিব নির্বিশেষে দীর্ঘ একমাসের কঠিন অনুশাসন, তারপর ধনীদের উপর বাধ্যতামূলক গরিবদের আর্থিক সাহায্যের মাধ্যমে ঈদকে আর পাঁচটি উৎসব হতে সম্পূর্ণ আলাদা মর্যাদা ও উচ্চতা প্রদান করে ।
মদীনায় ক্ষুদ্র ইসলামী রাষ্ট্রের মুসলিম জনগন যখন রমজানের রোজা সাধনায় রত তখন তাদের উপর চাপিয়ে দেওয়া হল এক অসম যুদ্ধের বোঝা । মাত্র ৩১৩ মুসলিম সুসজ্জিত এক হাজার মুশরিকের মোকাবেলায় অবতীর্ণ হতে বাধ্য হন এবং আল্লাহর অসীম কৃপায় ১৭ রমজানে তাঁরা বিজয়ী হন । এটা কোনো দেশ বা জাতির বিজয় ছিলনা । এটা ছিল অত্যাচারীর উপর মানবতার বিজয় । একপক্ষে আবিসিনিয়ার দাস বিলাল হাবসি, ইরানের সালমান ফারসি, মক্কা থেকে হিজরত করা মুহাম্মদ(সঃ) সহ তাঁর কিছু সাথী ও তাঁদের মদীনার কিছু আনসার অপরদিকে মক্কার সুসংগঠিত বর্ণবাদী মুশরিক শক্তি । এই বিজয় একদিকে যেমন জাতপাত ও ভৌগোলিক সীমাবদ্ধতা শেষ করে দিয়ে মানবতার বিজয়গাথা রচনা করেন।
কালক্রমে আজ বিশ্ববাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব হল ঈদ । বাঙালির ঘরে ঘরে আজ উৎসবের আনন্দ। ইফতার ও ঈদ সকল বাঙালিকে যতটা একাতত্বা করে তোলে আর কোনো উৎসব তার ধারে কাছেও যায়না ।
তবে আজ বাঙালি মুসলিমরাও ঈদের প্রকৃত শিক্ষা অনেকটাই বিস্মৃত হয়েছে । বাঙালি জাতি যত তাড়াতাড়ি এই শিক্ষা আবার আত্মস্থ করবে তত তাড়াতাড়ি মানবতা আবার জাতপাত সহ সকল ভেদাভেদের ঊর্ধ্বে এক সুন্দর সমাজ উপহার পাবে।