পৃথিবীর জন্য কি বিপদ সংকেত? সৌরমন্ডলে ধাবমান অজানা গ্রহাণুর দেখা মিলল

সামু সেখ, টিডিএন বাংলা : ভিন্ন সৌরজগত থেকে আগত দুর্জেয় রহস্যময় অবজেক্ট (বস্তু) এই প্রথমবার আমাদের সৌরমন্ডলে। তথ্য অনুযায়ী এই প্রথম অভ্যাগত বস্তু পরিদর্শক স্বরূপ আমাদের সৌরমন্ডলে। জ্যোর্তিবিজ্ঞানীরা চেষ্টা চালাচ্ছেন জানতে কি এই অবজেক্ট, কোথা থেকে আমাদের সৌরজগতে এলো এবং কোন দিকে তা ধাবিত হবে ? এটা কি ধূমকেতু না কি অন্য কোনো গ্রহাণু ? প্রশ্নের উত্তর সঠিকভাবে উদ্ঘাটিত হয়নি।

The National Aeronautics And Space Administration (NASA), নিশ্চিতভাবে কোনো কিছু উল্ল্যেখ করতে পারেনি। মহাকাশ বিজ্ঞানীরা ও সঠিক সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি যে কোথা থেকে এই অবজেক্ট সৌরমন্ডলের পরিবেষ্টনীর মধ্যে এসেছে। এই অবজেক্টের (বস্তু) বৈশিষ্ট্য ও গঠন আমাদের সৌরজগতের কোনো স্থানীয় স্থান শিলা বা Local Space Rock এর মতো নয়। নাসা সেন্টার ফর নেয়ার আর্থ অবজেক্ট স্টাডিজ এর ব্যবস্থাপক জানিয়েছেন, এটা যে দীর্ঘসময় ধরে তত্ত্ব অনুযায়ী দেখা গেছে কদাচিত্ গ্রহাণু, উপগ্রহ অথবা ধূমকেতু চলমান ভাবে আমাদের সৌরজগত দিয়ে ক্ষণস্থায়ী ভাবে যাত্রা করেছে। কিন্তু এই প্রথমবার সৌরজগত বহির্ভূত কোন গ্রহাণু বস্তু ( Interstellar Object) শনাক্তকরণ করা হয়েছে। নিশ্চিত হতে গেলে প্রয়োজন আর ও বিশদ তথ্য ও উপাত্ত।

এই সৌরজগত বহির্ভূত অবজেক্ট কে নামকরণ করা হয়েছে A/2017 U1 , এটি ব্যাস মধ্যে একটি চতুর্থাংশ মাইল কম এবং ধবনশীল গতি প্রতি সেকেন্ডে 15.8 মাইলস (25.5 কিলোমিটারস )।ইউনিভার্সিটি অফ হাওয়াই পান – স্টারর্স 1 টেলিস্কোপ, হেলিকাল হাওয়াই , 19th অক্টোবর আবিষ্কৃত হয় এই অদ্ভুত অবজেক্ট। তথ্য অনুযায়ী- Rob Weryk , a postdoctoral researcher at the university of Hawaii Institute for Astronomy , was the first to identity the object and immediately realized there was something different about it . যাই হোক না কেন এই অবজেক্ট পৃথিবীর জন্য ক্ষতিকারক কিছু নয় বলেই জানা গেছে। এই বিস্ময়কর অবজেক্ট গত 14th October পৃথিবী থেকে 15 মিলিয়ন মাইলস দূর থেকে অতিক্রম করেছে। বস্তুটি নক্ষত্রমণ্ডলীর দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং নিজের রাস্তায় আমাদের সৌরজগত থেকে নিজের গতিপথে বেরিয়ে যাবে এবং যেমন একটি গ্রহনক্ষত্রের নির্দিষ্ট আবক্রপথে দ্রুত ও ধাবিত এই অবজেক্ট আমাদের সৌরজগত থেকে বেরিয়ে যাবে এবং পুনরায় আর ফিরবে না।