এই শীতে ঠোঁট ফাটা ভুলে যান, জেনে নিন কিছু টিপস

ডাঃ বাসির আলি : শীত কাল এসেছে। এই শীতের প্রভাব ইতিমধ্যে আমাদের শরীরে পড়তে ধরেছে। শীতকালে ঠোঁটের সমস্যায় পড়েন নি, এমন ব্যক্তি খুঁজে পাওয়া কঠিন। শীতে বাতাসের আদ্রর্তা কম থাকে বলে আমাদের ঠোঁট শুষ্ক হয়ে যায়। যার ফলে ঠোঁট ফাটা, ঠোঁটের চামড়া ওঠা, ঠোঁট কালো হওয়া প্রভৃতি সমস্যা দেখা দেয়। তাই এই সময় ঠোঁটের সঠিক যত্ন নিতে হয়। চলুন শীতে ঠোঁটের যত্ন নিবো কিভাবে তার কিছু টিপস জেনে নেই –
প্রথমে আমি যেটির কথা বলবো সেটা হল ঠোঁটের স্ক্রাবিং। ঠোঁটে ডেড সেল বা মৃত কোষ এর কারনে ঠোঁট অনুজ্জ্বল দেখায়। তাই ঠোঁটের যত্ন নেওয়ার জন্য স্ক্রাবিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সে ক্ষেত্রে স্ক্রাবিং এর জন্য সম পরিমাণ লেবুর রস এবং মধু নিয়ে ভালভাবে মিশিয়ে ঠোঁটে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রাখুন।এরপর আধা চামুচ চিনি হাতের আঙুলে নিয়ে ঠোঁটে আলতো ভাবে ঘষুন।
স্ক্রাবিং এর জন্য আপনি ঠোঁটে পুরু করে ভেসলিন লাগিয়ে চিনি দিয়ে আলতো ভাবে ঘুষে ঠোঁটের মৃত কোষ তুলতে পারেন।
এছাড়াও টুথপেষ্ট ঠোঁটে লাগিয়ে ব্রাশ দিয়ে আলতো ভাবে ঘুষলেও ঠোঁটের মরা চামড়া ওঠে যায়।
ঠোঁটের স্ক্রাবিং এর পর অবশ্যই ঠোঁটের আদ্রর্তা বজায় রাখার জন্য ঠোঁটে ময়েশ্চারাইজার করতে হবে। সেক্ষেত্রে লিপজেল, ভেসলিন, পমেড অথবা পেট্রলিয়াম জেলি ব্যবহার করতে হবে।
ঠোঁটের শুষ্কতা ঢাকার জন্য অনেকে জিভ দিয়ে ঠোঁট ভেজানোর চেষ্টা করে। এটা খুব বাজে অভ্যাস । এতে ঠোঁটের শুষ্কতা বেড়ে যায় এবং ঠোঁট ফেটে যায়।
ঠোঁটের মরা চামড়া কোন ভাবেই টেনে উঠানো যাবে না। এতে ঠোঁট দিয়ে রক্ত পড়বে।
লিপস্টিক ব্যবহারে সচেতন হতে হবে। শীতে ম্যাট লিপস্টিক এড়িয়ে চলতে হবে। ভিটামিন ই যুক্ত লিপস্টিক ব্যবহার করতে হবে। কম দামি প্রসাধনী ব্যবহার করা যাবে না।

মন্তব্য করুন -