যে কথা আমাকে বলতেই হবে

0

যে কথা আমাকে বলতেই হবে

মোকতার হোসেন মন্ডল

আমাকে আজ বলতেই হবে—– জঙ্গিরা কেন জঙ্গলে ঘোরে দেখতে হবে।

হিটলার, মুসোলিনি, বিসমার্ক
স্তালিনরাও কারো কাছে ‘হিরো’।
ওদের শয়তান বললে দেশের জনগনকে
খাটো করা হয়।আমাকে বলতেই হবে——-
দেশটা উলঙ্গ। ত্রিরঞ্জিত পতাকার আড়ালে
মানুষ খুন হয়।
আজো বৃিট্রিশ আছে। তাদের আইন আছে।
এখনো স্বাধীনতার জন্য দেশে লড়াই চলে।যে কথা আমাকে বলতেই হবে——–
ধর্মের সব কিছু খারাপ নয়, আবার সব সেকুলার নাস্তিক হয় না।
রাজনীতির বাইরেও একটা রাজনীতি আছে।
কাশ্মীর, তেলেঙ্গানা, টাইগার, বাংলা, উর্দূ, তামিল, অসমিয়া দাবীগুলির আড়ালে অনেক দাবী আছে।

আমাকে আজ বলতেই হবে——-
আমেরিকা মানেই খারাপ নয়, বিপ্লবী মানেই সন্ত্রাসী নয়।
গদর, মহাসভা, অনুশীলন,নেতাজী যুগে যুগে আসতেই পারে।
রাষ্ট্র ওদের আটকাবে।
ক্ষুদিরাম, বিনয়-বাদলদের শতাব্দীর পর
শতাব্দী ফাঁসি হবে।
গান হবে
নব ইতিহাস রচিত হবে
ফের পল্টাবে।

আমাকে আজ বলতেই হবে——-
কবিতা মানে ছন্দ নাও হতে পারে,
রাজনীতি মানে ভোট নাও হতে পারে
নির্বাচন মানে গনতন্ত্র নাও বলতে পারে,
গান-বাজনার অর্থ সংস্কৃতি নাও বলতে পারে
দেশ প্রেমের নামে ভাষণ নাও বলতে পারে

আমাকে আজ বলতেই হবে——-
কেজরিওয়ালের মত অকস্বাৎ বিপ্লবী হতে পারে।
মমতার মত ক্ষমতা পেতে পারে।
ডিরোজিওর মতো হারিয়ে যেতেও পারে,
বিপ্লবী শতাব্দী পেরতে পারে——
দুমিনিটেও বিপ্লব আসতে পারে,
সবই বিধির বন্ধনে।

আমাকে যে কথা বলতেই হবে——-
আজো ক্ষুদিরাম আছে, বিনয় আছে, নেতাজি আছে। বিবেকানন্দ আছে।রবীন্দ্রনাথ, নজরুল আজ ঘরে ঘরে। হরিচাঁদ, আম্বেদকর এখনও কথা বলেন।
মহাত্মা-বিদ্যাসাগর এখনও আছে।
আজো মোহাম্মদের(স:) বানী আছে।
ঐশীপথ আছে।
একুশ শতকে শ্বাশত-চিরন্তন শান্তিকামী
শেষ বিপ্লব আসতেই পারে।