হত্যা করা হল মেক্সিকোর মাদকবিরোধী সাংবাদিক ভালদেজকে

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : মেক্সিকোর পুরস্কার বিজয়ী মাদকবিরোধী সাংবাদিক জাভিয়ার ভালদেজকে (৫০) গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।
স্থানীয় সময় সোমবার দুপুরে দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য সিনালোয়ার সুলিয়াকান শহরে এ ঘটনা ঘটে।
গত মার্চ থেকে মেক্সিকোতে ভালদেজকে নিয়ে ছয় সাংবাদিককে হত্যা করা হলো। মৃত্যুর এ সারির কারণে মেক্সিকোকে সংবাদকর্মীদের জন্য সবচেয়ে ভয়াবহ মৃত্যুপুরী মনে করা হয়।
ভালদেজকে হত্যার পর সোমবার রাতেই জালিস্কো রাজ্যের সিটি অব আটলানে একটি সাপ্তাহিক পত্রিকার নারী উপ-পরিচালকের গাড়ি সশস্ত্র হামলার শিকার হয়। এতে ওই নারী আহত এবং তার ২৬ বছর বয়সী ছেলে নিহত হন।
এর আগে গত শনিবার দক্ষিণাঞ্চলীয় গোয়েরেরো রাজ্যের একটি মহাসড়কে প্রায় একশ’ জনের একটি সশস্ত্র দল সাতজন সাংবাদিককে মারধর করে এবং জিনিসপত্র ডাকাতি করে।
সুলিয়াকান শহরের প্রকাশনা সংস্থা রিওডোসের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন নিহত ভালদেজ।
রিওডোসের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, সোমবার দুপুরের প্রথম দিকে প্রকাশনাটির কার্যালয়ের কাছে আক্রান্ত হন ভালদেজ। তিনি গাড়িতে করে কার্যালয় থেকে কিছু দূরে যাওয়ার পরপরই বন্দুকধারীদের হামলার শিকার হন। এ সময় তাকে গাড়ি থেকে বের করে কয়েক রাউন্ড গুলি করা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।
২০১১ সালে কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্টস (সিপিজে) ভালদেজকে ইন্টারন্যাশনাল প্রেস ফ্রিডম অ্যাওয়ার্ড দেয়। মাদকপাচারের ওপর প্রতিবেদনের জন্য তিনি এ পুরস্কার পান।
গত বছর তার একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, সাংবাদিক হওয়া মানে ব্ল্যাকলিস্টে থাকা।
প্রায় তিন দশকের ক্যারিয়ারে ভালদেজ শক্তিশালী মাদক চক্র সিনালোয়াসহ মেক্সিকোর মাদকপাচার ও সংঘবদ্ধ অপরাধচক্রের বিরুদ্ধে শক্তহাতে কলম চালিয়েছিলেন।
সিনালোয়া চক্রটি মেক্সিকো হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধ মাদক পাচারের সঙ্গে জড়িত। এই রুটে মাদক পাচারের ২৫ শতাংশ চক্রটি নিয়ন্ত্রণ করে।
এ চক্রের প্রতিষ্ঠাতা এল চাপোকে ২০১৪ সালে আটক করা হয়। তিনি এখন বিচারের অপেক্ষায় আছেন। এ চক্রের সঙ্গে বিরোধ ছিল ভালদেজের।
প্রসঙ্গত, সিপিজের তথ্য মতে, ১৯৯২ সালের পর থেকে মেক্সিকোতে পেশাগত কারণে খুন হয়েছেন কমপক্ষে ৪০ জন সাংবাদিক। একই সময়ে আরও ৫০ জন সাংবাদিক খুন হয়েছেন, তবে এর কারণ অজ্ঞাত রয়েছে।
সূত্র: এএফপি, এনবিসি ও বিবিসি

মন্তব্য করুন -