সামাজিক অবস্থার সঙ্গে ধর্মকে মানিয়ে নেয়ার আহ্বান এরদোগানের

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: যৌনতামূলক মন্তব্যের জন্য কিছু ইসলামী লেখকদের কঠোর সমালোচনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান। বর্তমান ঐতিহাসিক ও সামাজিক অবস্থার সঙ্গে ধর্মীয় অনুশীলনকে মানিয়ে নিতে আরো সক্রিয় ভূমিকা নেবার জন্য তিনি ধর্মীয় বিষয়ক অধিদপ্তর (দিয়ানেট ) কে আহ্বান জানিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আঙ্কারাতে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এরদোগান বলেন, ‘এমন কিছু প্রান্তিক লোক রয়েছেন- যাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে আমাদের দেশের, আমাদের ধর্মের মূল্যবোধের অবমাননা করা। এসব লোকদের কথাকে গ্রাহ্য করা আমাদের উচিৎ হবে না।’

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা নিয়ে রক্ষণশীল ‘সোশ্যাল ফ্যাব্রিকেশন ফাউন্ডেশন’ এর প্রধান নুরেদ্দিন ইলদিজের একটি বিতর্কিত মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে এরদোগান এসব কথা বলেন। গত ৩ মার্চ, অনলাইনে একটি ভিডিও পোস্টে ইলদিজ বলেন, ‘নারীদের আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ হওয়া উচিত, কারণ আল্লাহ নারীদের পেটানোর জন্য এবং শান্ত হওয়ার জন্য পুরুষ অনুমতি দিয়েছেন।’

ইলদিজের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে এ বিষয়ে অভিযোগ আনা হয়েছে। এর আগে তিনি আরো কয়েকটি বির্তকিত মন্তব্য করে সমালোচিত হন। তিনি পরামর্শ দিয়েছিলেন যে, ছয় বছর বয়সী একজন শিশু অন্যান্য শিশুদের বা প্রাপ্তবয়স্কদের বিয়ে করতে পারে। এছাড়াও, আরো বলেছিলেন যে, পুরুষ ও নারীদের একত্রে লিফ্টে আরোহন করা উচিৎ নয়।

প্রকাশ্যে ‘ঘৃণা এবং বিদ্বেষ’ ছড়ানোর অভিযোগে আঙ্কারার পাবলিক প্রসিকিউটরের অফিস ইলদিজের বিরুদ্ধে একটি অপরাধমূলক অভিযোগ দায়ের করেছে। ইলদিজের নাম উল্লেখ না করে এরদোগান তার ভাষণে বলেন, ‘এই ধরনের প্রচারকের স্থান আমাদের ধর্মে নেই।’

তিনি বলেন, ‘তারা এই শতাব্দীতে বসবাস করছেন না বা একটি সম্পূর্ণ ভিন্ন শতাব্দীতেও বাস করেন না, কারণ তারা এতটাই অক্ষম যে তারা জানে না পরিবর্তিত সময়ের সঙ্গে ইসলাম সংশোধিত হতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, ’১৪-১৫ শতাব্দী আগের যে বিধানসমূহ ছিল, আপনি তার সব কিছু বর্তমানে বাস্তবায়ন করতে পারেন না। নির্দিষ্ট সময়ের নির্দিষ্ট কোনো সমাজের প্রবিধান এবং ঐতিহ্য বহন করা কেবল সেটিকে নষ্ট করে দেবে।’
তিনি অভিযুক্ত করে বলেন, ‘কেবল জনপ্রিয় হতেই তারা ধর্মীয় ধারণাগুলি প্রচার করছেন। তারা কেবল নারীকেই নয়, বরং আমাদের বিশ্বাস ও ধর্মকেও ভুল পথে নিচ্ছে। আমরা তা গ্রহণ করতে পারি না।’