গাজায় ইসরাইলী হামলায় শিশু ও তার অন্তঃসত্ত্বা মাসহ নিহত ৩

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক:  ফিলিস্তিনের গাজা ভূখণ্ডে ইসরাইলী বাহিনীর ধারাবাহিক বিমান হামলায় এক গর্ভবতী নারী ও তার দেড় বছর বয়সী শিশুসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। ইসরাইলী ভূখণ্ডের দিকে হামাসের ছোড়া শতাধিক রকেটের প্রতিক্রিয়ায় বুধবার তেল আবিব এ হামলা চালায় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

হামাসের রকেটে ইসরাইলের বেশ কয়েকজন জখম হয়েছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যম।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মধ্য গাজার জাফারাউয়ি এলাকায় ইসরাইলী বিমান হামলায় ২৩ বছর বয়সী গর্ভবতী নারী এনাস খামমাশ ও তার ১৮ মাসের শিশুকন্যা নিহত হয়েছে। হামলায় এনাসের স্বামী আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

বিমান হামলায় উত্তর গাজায় হামাসের এক সদস্য নিহত ও গাজার বিভিন্ন এলাকায় আরও অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন বলেও নিশ্চিত করেছেন ওই কর্মকর্তারা। গাজায় বিমান হামলার বিষয়ে তেল আবিব কোনো মন্তব্য করেনি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) বলছে, বুধবার তাদের একটি সাঁজোয়া যান ‘জঙ্গিদের’ গুলীর মুখে পড়লে সহিংসতার সূচনা ঘটে। পাল্টা প্রতিক্রিয়ায় ইসরাইল ট্যাংক থেকে গুলী ছুঁড়লে পরে তাদের ভূখণ্ড বরাবরও শতাধিক রকেট ছুটে আসে।

বুধবার রাতের ওই রাকেট হামলার দায় স্বীকার করেছে হামাসের সামরিক শাখা। চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে গাজার উত্তর অংশে হামাসের সীমান্ত চৌকি লক্ষ্য করে ইসরাইলের গোলা বর্ষণের ঘটনায়ও দুই ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছিলেন। আইডিএফের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে হামাসের অস্ত্র কারখানা ও গুদামসহ ১৪০টিরও বেশি সামরিক স্থাপনায় ইসারায়েলি বিমানের হামলার কথা জানানো হয়েছে।

“গাজা উপত্যাকা থেকে ইসরাইলী ভূখণ্ডে ছোড়া রকেটের প্রতিক্রিয়ায় সন্ধ্যা থেকে রাতের মধ্যে এসব হামলা চালানো হয়,” টুইটারে বলেছে আইডিএফ। ইসরাইলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে প্রায় ১৫০টি রকেট ছোড়া হয়েছিল বলে দাবি করেছে তারা।

রকেটে ক্ষতিগ্রস্ত এসদেরত শহরের বাড়িঘর ও গাড়ির ছবি দেখিয়েছে ইসরাইলী টেলিভিশন।

ইসরাইলের সঙ্গে অস্ত্রবিরতি প্রসঙ্গে মিশর ও জাতিসংঘের দেওয়া প্রস্তাব নিয়ে আলোচনায় হামাসের শীর্ষ কর্মকর্তাদের একটি প্রতিনিধিদলের গাজা সফরের পরপরই সীমান্তে এ পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটল।

জাতিসংঘের মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক দূত নিকোলাই ম্লাদেনভ বুধবার ইসরাইলী ভূখণ্ড বরাবর ছোড়া হামাসের রকেট হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। উত্তেজনা প্রশমনে দুই পক্ষকে সংযত হওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
বিবিসি/আল জাজিরা