জেলবন্দির পর খালেদার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে 

0

টিডিএন বাংলা ডেস্কঃ জেলবন্দির পর খালেদার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে বলে মনে করছেন বিশিষ্ট মহল। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়ার ঘটনায় প্রতিবাদ কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন বিএনপিপন্থি কর্মীরা। এদিকে গতকাল সোমবার দ্বিতীয় দিনের মতো দেশের আইনজীবী সমিতিগুলোয় প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতারা। এ সময় খালেদা জিয়াকে জেলবন্দি করায় তার জনপ্রিয়তা তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা।

সুপ্রিমকোর্টে অনুষ্ঠিত গতকালের কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে প্রাক্তন আইনমন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, দেশে প্রতিহিংসা ও মিথ্যাচারের রাজনীতি চলছে। আমাদের এখন একমাত্র চ্যালেঞ্জ হচ্ছে গণতন্ত্র ও ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনা। তিনি মনে করেন, ভোটের অধিকার ফিরে এলে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি আন্দোলনে সফল হবে।


আবার, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন বলেন, মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড দেওয়ায় তার জনপ্রিয়তা তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই কারাদন্ড আসলে সরকার পতনের প্রথম ধাক্কা। তিনি আরও বলেন, তাকে দীর্ঘদিন যাতে কারাগারে রাখা যায়, সেই চেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে সরকার। কারণ সরকার তাকে ভয় পায়। তবে এভাবে তাকে বেশিদিন কারাগারে রাখা যাবে না। খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দেওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন চলবে। শুধু বিএনপি, সাধারণ মানুষ নয় আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মীও মনে করেন এ রায় সঠিক হয়নি। জয়নুল আরও বলেন, আমরা শুধু রায়ের সত্যায়িত কপির জন্য অপেক্ষা করছি। সেটা হাতে পেলেই আপিল এবং জামিনের জন্য আবেদন করব।

এদিন মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, এম মাহবুবউদ্দিন খোকন, তৈমূর আলম খান্দকার, সানাউল্লাহ মিয়া, বদরুদ্দোজা বাদল, কায়সার কামাল, আসিফা আশরাফী পাপিয়া, রুহুল কুদ্দুস কাজল প্রমুখ। সমাবেশ শেষে আইনজীবীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।