টিডিএন বাংলা ডেস্ক: বসনিয়ার রাজধানী সারাজেভোতে গত বৃহস্পতিবার এক সঙ্গে ৬০ দম্পতির বিবাহ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। আয়োজকরা জানিয়েছেন, এটি ইউরোপের সবচেয়ে বড় ইসলামি বিবাহ অনুষ্ঠানের একটি এবং যুবক-যুবতীদের পরিবার জীবন শুরু সহজ করার জন্যই তাদের এই উদ্যোগ।

বসনিয়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে কেবল সিভিল বা সামজিক বিবাহের স্বীকৃতি দেয়। যেসব দম্পতি ইতোমধ্যে বৈধভাবে বিবাহ করেছেন, তারা ধর্মীয় বা সাংস্কৃতিক কারণে এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

৩১ বছর বয়সী আলামিন কিটুক রয়টার্সকে বলেন, ‘প্রত্যেকের জন্যই বিয়ের দিনটি একটি বিশেষ দিন। কিন্তু এতগুলো দম্পতির এক সঙ্গে বিবাহ যা সারা জীবনের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’
অনুষ্ঠানটি আয়োজনে একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান সহায়তা করে। দাতব্য প্রতিষ্ঠানটি থেকে বরদের জন্য স্যুট এবং কনেদের জন্য ফ্যাকাশে রক্তবর্ণের গাউন এবং সাদা রঙের হিজাব সরবরাহ করা হয়। এছাড়াও, প্রতিটি দম্পতিকে ৩০০ মার্কিন ডলার নগদ প্রদান করা হয়। সারাজেভোর ইস্তিকলাল মসজিদের ইমাম ও আয়োজনের নেতৃত্ব দানকারী ইমাম রেসুল আলিক জানান, তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে বসনিয়ান যুবক-যুবতীদের পরিবার শুরু করতে উৎসাহিত করা। কেননা অনেকেই বিবাহ অনুষ্ঠান আয়োজনকে অনেক ব্যয়-বহুল মনে করেন; যার ফলে অনেকেই সময় মতো বিবাহ করতে পারেন না।
তিনি বলেন, ‘বিবাহ হচ্ছে মানবজাতির এবং যেকোনো সমাজের একটি ভিত্তি। আমাদের সমাজ ও পরিবার আজকাল অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছে এবং অনেক কম লোকই বিয়ে করছে।’