রোহিঙ্গাদের মতো নিজ দেশে পরবাসী হতে চলেছেন ফিলিস্তিনের মুসলমানরা

0

 টিডিএন বাংলা ডেস্ক:  ইসরাইলের সংসদ নেসেটে একটি আইন পাস করা হয়েছে যা বলবত করা হলে ফিলিস্তিনি জনগণের বসবাসের অধিকার কেড়ে নেয়া যাবে। আইনে বলা হয়েছে, পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরে বসবাসকারী ফিলিস্তিনিরা ইসরাইলের প্রতি অনুগত না হলে তাদের আবাসন সুবিধা বাতিল করা হবে। খবর পার্সটুডের।
বুধবার ইসরাইলি সংসদে এ আইন পাস হয়েছে এবং এতে আরো বলা হয়েছে- যেসব ব্যক্তি মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব নিয়েছে তাদের ক্ষেত্রেও এ আইন প্রযোজ্য হবে। এছাড়া, ইসরাইলি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টিতে যারা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করছে তাদেরকেও এ আইনের আওতায় আনা হবে।
এ আইনের আওতায় যেসব ফিলিস্তিনিকে ইসরাইলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরিয়েহ দেরি হুমকি বলে মনে করবেন তিনি সেসব ফিলিস্তিনিকে বায়তুল মুকাদ্দাস থেকে উচ্ছেদ করতে পারবেন। ইসরাইলের এই আইনকে চরম বর্ণবাদী বলে মন্তব্য করেছেন ফিলিস্তিনি মুক্তি সংস্থা বা পিএলও’র সিনিয়র সদস্য হানান আশরাভি।
বায়তুল মুকাদ্দাসকে নিজের বলে দাবি করলেও এ শহরে যেসব ফিলিস্তিনি জন্মগ্রহণ করেন তারা কেউ ইসরাইলের নাগিরকত্ব নিতে বাধ্য নন। এসব ফিলিস্তিনিকে স্থায়ী আবাসনের পরিচয়পত্র দেয়া হয় এবং শুধুমাত্র ভ্রমণের জন্য জর্দানের পাসপোর্ট দেয়া হয়। এসব ফিলিস্তিনি কার্যত রাষ্ট্রহীন অবস্থায় বসবাস করেন কারণ তারা ইসরাইল, ফিলিস্তিন কিংবা জর্দান কোনো দেশেরই নাগরিক নন।বলা যায়, বাইতুল মুকাদ্দাস বা জেরুসালেম শহরের মুসলমানরা অনেকটা মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের মতই রাষ্ট্রহীন নাগরিক।

head_ads