আত্মঘাতী বোমা হামলাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে দুই হাজার আলেমের ফতোয়া পাকিস্তানে

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রভাবশালী প্রায় দুই হাজার ওলামা আত্মঘাতী বোমা হামলাকে হারাম ঘোষণা করে ফতোয়া জারি করেছেন। ফতোয়ায় বলা হয়েছে, আত্মঘাতী হামলাকারী, নির্দেশদাতা ও প্রশিক্ষকদের সত্যিকারের ইসলামি স্পিরিটে বিদ্রোহী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এ ধরনের অপরাধীদের বিরুদ্ধে পাকিস্তান সরকারের পদক্ষেপ নেয়ার অধিকার রয়েছে।খবর পার্স টুডের।

সম্প্রতি নিষিদ্ধ ঘোষিত কয়েকটি সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের আত্মঘাতী হামলায় পাকিস্তানে সাধারণ মানুষ হতাহত হওয়ার হার বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষিতে এই ফতোয়া দেয়া হলো।  সম্প্রতি শীর্ষ আলেমদের ফতোয়া সম্বলিত ‘পেহগাম-ই-পাকিস্তান’ নামক বইয়ে দেশটির এক হাজার আটশ ৩৯ জন ওলামা স্বাক্ষর করেছেন।

Advertisement
head_ads

ফতোয়ায় বলা হয়েছে, ইসলামের নামে যুদ্ধ ও জিহাদ ঘোষণা করার অধিকার একমাত্র রাষ্ট্রেরই রয়েছে। যারা নিজেদের চিন্তাধারা চাপিয়ে দিতে চায় তারাই বিশ্বে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির জন্য দায়ী।
পাকিস্তানের ভেতর অস্ত্র নিয়ে লড়াইও ইসলামিক আইনে (শরিয়াহ) নিষিদ্ধ বলে ওই ফতোয়ায় বলা হয়।

ফতোয়ায় স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে রয়েছেন সাম্প্রদায়িকতার দায়ে নিষিদ্ধ সংগঠন ‘আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের’ মুহাম্মাদ আহমাদ লুধিয়ানভী ও আওরঙ্গজেব ফারুকি। এছাড়া স্বাক্ষর করেছেন হামিদ-উল হক। তার বাবা মরহুম সালিম-উল হক ‘ফাদার অব আফগান তালেবান’ খ্যাত। পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর পেশওয়ারে সালিমের মাদ্রাসাতেই আফগান তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমর পড়াশোনা করেন।

head_ads