১২ ঘণ্টার তর্ক-বিতর্ক শেষে অনাস্থা ভোটে জিতল মোদী সরকার

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : অবশেষে অনাস্থা ভোটে টিকে গেল মোদি সরকার। শুক্রবার সকাল থেকে লোকসভায় কয়েক ঘণ্টার বিতর্ক শেষে বিকালে অনাস্থা প্রস্তাবের ওপর ভোট দেন সদস্যরা। লোকসভার ৪২৫ সদস্যের মধ্যে ৩২৫ জন সরকারের সমর্থনে এবং ১২৬ জন অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেন।

গত মার্চে বিজেপি নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) সরকার থেকে বেরিয়ে যাওয়া তেলেগু দেসাম পার্টি (টিডিপি) লোকসভায় সরকারের বিরুদ্ধে এই অনাস্থা ভোটের প্রস্তাব তোলে।

অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর নেতৃত্বাধীন দলটি বুধবার ওই প্রস্তাব তুললে স্পিকার সুমিত্রা মহাজন তা গ্রহণ করে শুক্রবার বিতর্ক ও ভোটাভুটির দিন ঠিক করেন।

বিজেপির মিত্র শিব সেনা ছাড়াও নবীন পাটনায়েকের বিজেডি, তেলেঙ্গনার ক্ষমতাসীন দল তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র্র সমিতি-টিআরএসের সদস্যরা ভোটদানে বিরত থাকে।

তামিলনাড়ুর ক্ষমতাসীন দল এআইএডিএমকের সদস্যরা সরকারের পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

এর আগে সর্বশেষ ২০০৩ সালে অটল বিহারি বাজপেয়ী সরকারকে পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোটের মুখোমুখি হতে হয়েছিল।

ভারতে এখন পর্যন্ত ২৬টি সরকারকে অনাস্থা ভোটের মুখোমুখি হতে হয়েছে। যার মধ্যে ২৩ বারই সরকার ভোটাভুটিতে জয়লাভ করেছে।

যে তিনজন প্রধানমন্ত্রী অনাস্থা ভোটে হেরেছেন তারা হলেন: অটল বিহারি বাজপেয়ী (১৯৯৯), দেব গৌড়া (১৯৯৭) এবং ভিপি সিং (১৯৯০)।

১৯৬৩ সালে ভারত-চীন যুদ্ধের পর প্রথম ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে জহরলাল নেহরু অনাস্থা ভোটের মুখোমুখি হয়েছিলেন এবং বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছিলেন।