টিডিএন বাংলা ডেস্ক : দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্থানগুলোর অন্যতম গোয়ার সমুদ্র তীর। শুধু প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বা পর্যটকবান্ধব হওয়ার কারণেই নয়, গোয়া বিখ্যাত তার সস্তায় ভালো মদের জন্যও।

কিন্তু সুখের সে দিন শেষ হতে চলেছে। ১৫ আগস্ট থেকে গোয়ার সমুদ্র তীরবর্তী এলাকায় নিষিদ্ধ হচ্ছে মদ্যপান। জনসমক্ষে মদ খেলে গুণতে হবে মোটা জরিমানা। শুধু তা-ই নয়, প্রকাশ্যে ধূমপান ও প্লাস্টিক ব্যবহার রুখতেও কঠোর হচ্ছে আগের আইন।

রাজ্যের আর্থিক বিকাশ নিগম পরিচালিত একটি পক্ষী প্রজনন কেন্দ্রের উদ্বোধনে গিয়ে এ কথা জানান গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিকর। সেখানে উপস্থিত সকল দর্শকদের উদ্দেশে নাগরিক দায়িত্ব নিয়ে প্রশ্ন করেন তিনি।

তিনি জানান, পনজিম শহর লাগোয়া ফুটপাতে ঢালাও মদ বিক্রি হয়। দেদার মদ্যপানের আসর বসে, প্রকাশ্যে বিয়ার খাওয়ার চল রয়েছে এখানে। সেসব অভ্যাসে রাশ টানতেই এ বার কড়া হচ্ছে গোয়া সরকার। পারিকর বলেন, ‘১৫ আগস্টের পর থেকেই এ সব রুখতে জরিমানা ধার্য করা হবে।’

রাজ্যে উদ্দাম মদ্যপান ও বিশৃঙ্খলায় রাশ টানতে এ ছাড়া আর কোনও উপায় মুখ্যমন্ত্রীর ছিল না বলেই মনে করছে রাজনীতি মহল। এখনও পর্যন্ত মদ খাওয়ার জরিমানার অংক ঠিক না হলেও প্লাস্টিক ব্যবহারের জরিমানা ১০০ রুপি থেকে বেড়ে ২৫০০ রুপি হবে ও ধূমপানের জরিমানাও বাড়বে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।