স্বাধীনতার পর এই প্রথম ১ লাখ ৭৫ হাজার ২৫ জন ভারতীয় হজে যাচ্ছেন

0
কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু বিষয়কমন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি গত মঙ্গলবার বিমান ভাড়া কমানোর ঘোষণা দিয়েছেন। ২০১৩ সালে সাবেক ইউপিএ সরকার কর্তৃক ২০১৪ সালে হজ্ব যাত্রার জন্য যে বিমান ভাড়া ঘোষিত ছিল সেই তুলনায় তা এবার অনেকটাই কমেছে। হজ্ব যাত্রীদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার চলতি বছরেই ভর্তুকি প্রত্যাহার করে নিয়েছে।  ২০১৪ সালে পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতা থেকে হজে গেলে ১ লাখ ১২ হাজার ৪৫০ টাকা বিমান ভাড়া দিতে হতো। এবার তা কমে ৮৯ হাজার ৫৮৯ টাকা করা হয়েছে। মুম্বাই থেকে বিমান ভাড়া আগে ৯৮ হাজার ৭৫০ টাকা ছিল। বর্তমানে তা কমে ৫৭ হাজার ৮৫৭ টাকা হয়েছে। ২০১৩/২০১৪ সালে শ্রীনগর থেকে ১ লাখ ৯৮ হাজার ৩৫০ টাকা বিমান ভাড়া ছিল, বর্তমানে তা কমে ১ লাখ ১ হাজার ৪০০ টাকা হয়েছে। আহমেদাবাদ থেকে ভাড়া ছিল ৯৮ হাজার ৭৫০ টাকা, বর্তমান তা কমে ৬৫ হাজার ১৫ টাকা করা হয়েছে।
এ বছর এয়ার ইন্ডিয়া, সৌদি এয়ারলাইনস এবং ফ্লাইনাস বিমান সংস্থার মাধ্যমে হজ্বযাত্রীদের নিয়ে যাওয়া হবে। এয়ার ইন্ডিয়ার জন্য কোলকাতা, চেন্নাই, গোয়া, নাগপুর, শ্রীনগর, মুম্বাই কেন্দ্র খোলা হয়েছে। সৌদি এয়ারলাইনসের জন্য আহমেদাবাদ, বেঙ্গালুরু, কোচি, দিল্লি, হায়দ্রাবাদ, জয়পুর এবং ফ্লাইনাসের জন্য আওরঙ্গাবাদ, ভোপাল, ম্যাঙ্গালুর, গয়া, গুয়াহাটি ও রাঁচিতে কেন্দ্র খোলা হয়েছে।