ছবি : সংগৃহীত

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : প্রতীক হাজেলার প্রস্তাবকে মান্যতা দিল সুপ্রিমকোর্ট। ১৫ ধরণের পরিবর্তে ১০ ধরণের নথির উপর ভিত্তি করে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে এনআরসির দাবি তথা আপত্তি-অভিযোগ প্রক্রিয়া। এই প্রক্রিয়া দু’ মাস চলবে। প্রায় এক মাস পর অর্থাৎ আগামী ২৩ অক্টোবর ৫ ধরনের নথির গ্রহনযোগ্যতা সম্পর্কে বিবেচনা করবে সুপ্রিমকোর্ট। বুধবার সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ও বিচারপতি রহিন্তন ফলি নরিম্যানের ডিভিশন বেঞ্চ এনআরসি সম্পর্কীয় মামলার শুনানি গ্রহণ করে।

কোর্ট আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে চূড়ান্ত খসড়ায় বাদ পড়া লোকদের দাবি তথা আপত্তি-অভিযোগের আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু করার নির্দেশ দিয়েছে। এই মুহূর্তে যে নথিগুলি গ্রহণযোগ্য হবে সেগুলি হল – জমি কেনা-বেচার দলিল, পাসপোর্ট, জীবন বীমা, পার্মানেন্ট রেসিডেন্স সার্টিফিকেট, সরকরি লাইসেন্স অথবা পাব্লিক সেক্টরে কাজের ডকুমেন্ট, বার্থ সার্টিফিকেট, বোর্ড, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় সার্টিফিকেট, কোর্ট ও রেভিনিউ কোর্টের নথিপত্র, ভিন রাজ্যের সিটিজেনশিপ সার্টিফিকেট।