মুজাফফরনগর দাঙ্গায় অভিযুক্ত বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার করছে যোগি সরকার !

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : এইবার নিজেদের দলীয় সদস্যদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহারের প্রস্তুতি নিচ্ছে উত্তরপ্রদেশের যোগি সরকার। ২০১৩ সালে সংঘটিত মুজাফফরনগর দাঙ্গার পর ৯ জন বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল। কিন্তু এই নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহার করতে চলেছে যোগি সরকার। রাজ্য সরকারের এক প্রবীণ আধিকারিক মুজাফফরনগরের ডিএমকে চিঠি লিখে এই মামলা প্রত্যাহার করার কথা বলেছেন।


মুজাফফরনগর দাঙ্গায় বিজেপির যে সমস্ত নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল তারা হলেন, সুরেশ রাণা, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সঞ্জীব বাল্যান, সাংসদ ভারতেন্দু সিং, বিধায়ক উমেশ মালিক এবং সাদ্ধী প্রাচী প্রমুখ। চলতি জানুয়ারি মাসে ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেটকে ৫টি চিঠি পাঠানো হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের ন্যায় বিভাগের স্পেশাল সেক্রেটারি রাজ সিংয়ের পক্ষ থেকে এই চিঠিগুলি পাঠানো হয়। এই চিঠিতে মামলা প্রত্যাহারের বিষয়াদি জানতে চাওয়া হয়েছে। আরও জানতে চাওয়া হয়েছে যে, জনস্বার্থে কি এই মামলা প্রত্যাহার সম্ভব? এব্যাপারে মুজফফরনগরের প্রবীণ এসপির কাছ থেকেও মতামত চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন রাজ সিং।

যদিও এই চিঠিতে অভিযুক্ত বিজেপি নেতাদের নাম উল্লেখ করা হয়নি, কিন্তু মামলার ফাইল নাম্বার উল্লেখ করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইপিসির বেশ কয়েকটি ধারায় মামলা দায়ের করা রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইন অমান্য, সরকারি আধিকারিকদের কাজে বাধাদান ইত্যাদির অভিযোগ রয়েছে। শুধু তাই নয় একটি মহা পঞ্চায়েতে অংশগ্রহণ করে তারা বিতর্কিত মন্তব্য করেন, যার ফলেই এই দাঙ্গা সংঘটিত হওয়ার অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।


উল্লেখ্য, মুজাফফরনগর দাঙ্গায় প্রচুর লোক প্রান হারিয়েছিল। এই দাঙ্গার পর প্রবল শীতে খোলা আকাশের নীচে দিন কাটাতে হয়েছিল এলাকাবাসীদের। এই দাঙ্গায় প্রায় ৬০ জনের প্রান গিয়েছিল এবং ৪০ হাজারেরও অধিক মানুষ ঘরছাড়া হয়েছিল। এই দাঙ্গার পর ২২ জন সমাজকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছিল। অভিযুক্তদের সবার মামলা আদালতে এখনও ঝুলে রয়েছে। তৎকালীন রাজ্য সরকার এই মামলার তদন্তের জন্য সিট গঠন করেছিল, সম্প্রতি সিট তাদের চার্জশিট আদালতের হাতে তুলে দিয়েছে।