বিরোধীদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহী আইনের অপব্যাবহার করছে মোদী সরকার : এমেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : মোদী সরকার দ্বারা দেশদ্রোহী আইনের অপব্যবহাররের কড়া সমালোচনা করল এমেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। ব্রিটেনের এনজিও সংস্থা এমেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এই আইনকে বিরোধীদের এবং সরকার পক্ষের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের মুখবন্ধে মোদী সরকারের হাতিয়ার হিসাবে উল্লেখ করে। ওই সংস্থার বাৎসরিক আলোচনা সভায় একটি রিপোর্ট পেশ করে মোদী সরকারের সমালোচনা করা হয়। রিপোর্টে বলা হয় ভারতে মানবাধিকার কর্মী এবং সাংবাদিকদের প্রচুর অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়। শুধু তাই নয়, সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করলে তাদের উপর অত্যাচারের পাশাপাশি প্রাণ হানীর আশঙ্কাও উপস্থিত হয় বলে ওই রিপোর্টে বলা হয়। রিপোর্টে আরো বলা হয় শুধু যে প্রশাষনের পক্ষ থেকেই এই ভয় রয়েছে তা নয়, বরং সরকার সমর্থিত লোকেদের পক্ষ থেকেও এই ভয় থেকেই যাচ্ছে।

ভারতের বেশ কিছু এনজিও সংগঠনের বিরুদ্ধে মোদী সরকারের তদন্তের কড়া নিন্দা জানায় এমেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। দেশজুড়ে গোমাংস নিয়ে সরকার পক্ষের লোকেদের দাদাগিরির বিষয়েও চিন্তা প্রকাশ করে ওই এনজিও সংস্থা।
উল্ল্যেখ্য যে, বিগত দু’ বছরে দেশজুড়ে এমন এমন ঘটনা ঘটেছে যা ভারতের কঙ্কালসার চেহারা বিশ্ব সম্মুখে তুলে ধরেছে। ২০১৬ সালে গুজরাতের গির – সোমনাথ জেলায় ৪ দলিতকে একসাথে বেধে পেটানো হয়। এরপর রাগান্বিত দলিতরা রাজ্য জুড়ে আন্দোলনে নামে। এরপর একই ধরনের ঘটনা ঘটানো হয় উত্তরপ্রদেশে। যেখানে আখলাক নামের এক ব্যাক্তিকে ফ্রিজে গোমাংস রাখার মিথ্যা অভিযোগে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়।
বিশ্ব তথা দেশ জুড়ে মোদী সরকারের সমালোচনা আখেরেই লজ্জিত করছে ভারতকে।