মুজাফফরনগর দাঙ্গায় আক্রান্ত মুসলিম পরিবারগুলির কাছে ক্ষমা চাইছে জাঠেরা

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : মুজাফফরনগর দাঙ্গার ক্ষত আজও পুরোপুরি শুকায়নি। এই দাঙ্গায় সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল এলাকার মুসলিম পরিবারগুলি। সেই কথা মাথায় রেখেই এক অভিনব পন্থা বেছে নিয়েছেন মুজাফফরনগরের কুতুবা গ্রামের বিপিন সিং বালিয়ান। তিনি সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় ক্ষতিগ্রস্ত মুসলিম পরিবারগুলির বাড়ি বাড়ি গিয়ে জাঠেদের পক্ষ থেকে ক্ষমাপ্রার্থনা করছেন।

Advertisement
head_ads

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে সংঘটিত এই দাঙ্গায় বিপিন সিং বালিয়ানের গ্রামের ৫৫ জন জাঠ যুক্ত ছিলেন, যাদের বিরুদ্ধে হত্যা সহ ৯টি আলাদা আলাদা মামলা দায়ের রয়েছে। ২০১৭ সালের ৮ সেপ্টেম্বর সকালে কুতুবায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়েছিল। সেসময় স্থানীয় যুবকেরা ৮ জন মুসলমানকে মেরে ফেলেছিল। এরপর স্থানীয় মুসলনমানরা পালাতে বাধ্য হয়েছিল।

বালিয়ানের কথায়, ‘আমি আখতার হোসেনের বাড়ি যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই, যে কিনা কুতুবার মুসলমানদের মধ্যে অন্যতম এক ব্যক্তিত্ব। আমি সেখানে ক্ষমা চাইতে গিয়েছিলাম। প্রথমবার আমি যখন সেখানে যায়, তখন সেখানকার মুসলিমরা আমাকে গালি দেওয়া শুরু করেন এবং দাঙ্গা সংক্রান্ত নানা অভিযোগ করতে থাকেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘জাঠেরা তাদের সঙ্গে যে ব্যবহার করেছিল, তারা তারজন্য আমাকে অপমান করা শুরু করে দিয়েছিল।

আমি কোনওরকম প্রতিক্রিয়াও দেখায়নি এবং নিজেকে বাঁচানোর কোনও চেষ্টাও করিনি। আমি আমার জাঠ অহঙ্কার তাদের দরজায় ফেলে দিয়েছিলাম এবং তারা যা বলছিল চুপচাপ শুনে যাচ্ছিলাম।’ শেষমেশ তার কথা শোনার পর মুসলিমরা জাঠদের ক্ষমা করে দিয়েছেন বলে খুশি প্রকাশ করেন বালিয়ান।

head_ads