মুসলিম মেয়ের সঙ্গে প্রেম হিন্দু ছেলের, পরিবার বাধা দেওয়ায় আত্মঘাতী প্রেমিক যুগল

0
টিডিএন বাংলা ডেস্ক : ঝাড়খণ্ডে চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মাহুতি দিলো কিশোর বয়সী প্রেমিক যুগল। বাবা-মায়ের কাছ থেকে বিয়ের অনুমতি না পেয়ে এ কাণ্ড ঘটায় তারা। পুলিশ জানায়, ছেলেটি হিন্দু পরিবারের আর মেয়েটি মুসলিম।
সূত্রের খবর, গিরদিহ জেলার দালাঙ্গি গ্রামেই ওই প্রেমিক যুগলের বাড়ি। তারা বিয়ে করতে চেয়েছিল। কিন্তু পরিবার তাতে বাধ সাধে। বরং মেয়েটির বিয়ে ঠিক করা হয় অন্য কোথাও। ধর্মের কারণে এই প্রেমের বাধা তারা মেনে নিতে পারেনি। এগিয়ে যায় আত্মহত্যার দিকে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার সকালে তারা কেশওয়ারি ব্লকের দিকে এগিয়ে যায়। হাওড়া-যোধপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি দ্রুতগতিতে আসছিল। ছেলে-মেয়ে দুজন দুজনকে জড়িয়ে ধরে। একে অপরকে চুমু খায় এবং ট্রেনের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাদের ওপর দিয়ে ট্রেনটি চলে যায়। টুকরো টুকরো হয়ে যায় দুটো শরীর।
প্রেম সর্ম্পকিত বিষয় নিয়ে বিহার ও ঝাড়খণ্ড প্রদেশে আত্মহত্যা বেড়েছে। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ধানবাদ জেলায়ও এ ধরনের প্রেম সর্ম্পকিত টানাপড়নের ঘটনায় সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে একটি সরকারি কোয়ার্টারে প্রেমিক যুগল আত্মহত্যা করেন।
এছাড়াও রাঁচিতে পুলিশ পাঁকড়াও করলে প্রেমিক-প্রেমিকা থানাতেই বিষপানে আত্মহত্যার ঘটনাও রয়েছে। মনোবিজ্ঞানীদের মতে, আত্মহত্যা কখনই সমাধান নয়। বরং বেঁচে থেকে জয় করার মধ্যেই রয়েছে সাহসিকতা এবং সাফল্যের গল্প।