ভারতে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ক্যাম্পে পাঠাতে হবে খাবার ও পানীয় জল, কেন্দ্রকে নির্দেশ সুপ্রিমকোর্টের

0

টিডিএন বাংলা ডেস্ক : ‌কেন্দ্র সরকার সুপ্রিম কোর্টকে লিখিতভাবে জানিয়েছিল যে, প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থী ভারতে বসবাস করছেন এবং তাদের কারণে দেশের জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে। সেকারণেই, জাতীয় স্বার্থে ওই শরণার্থীদের তাদের নিজেদের দেশে, অর্থাৎ মায়ানমারে ফিরিয়ে দিতে চায় কেন্দ্র সরকার।

অগাস্টের শেষ সপ্তাহে মায়ানমারের সাম্প্রতিকতম সহিংসতা শুরু হওয়ার পর থেকে গত কয়েক মাস ধরেই একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বিজেপি-র নেতারা রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারতের এই অবস্থানের কথা জানিয়ে আসছেন।

Advertisement
head_ads

বর্তমানে রোহিঙ্গারা শরণার্থী হিসাবে ক্যাম্প করে রয়েছেন হরিয়ানা, জম্মু–কাশ্মীর, হায়দরাবাদ, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান এবং দিল্লিতে। সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের এক শীর্ষ আইনজীবি জানান, এই ক্যাম্পগুলির অবস্থা অত্যন্ত অস্বাস্থ্যকর এবং দারিদ্র গ্রাস করেছে। এমনকী জনৈক ব্যক্তি জাফর উল্লার হয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেন এই শীর্ষ আইনজীবি কোলিন গনসেল্ভ। এই জনস্বার্থ মামলার প্রেক্ষিতে সোমবার কেন্দ্রের কাছে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বিস্তারিত অবস্থা সংক্রান্ত রিপোর্ট তলব করল সুপ্রিম কোর্ট।

এদিন প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বে বিচারপতি এএম খানওয়ালকর ও বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের ডিভিশন বেঞ্চ কেন্দ্রের কাছে এই বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট তলব করেন। পাশাপাশি কেন্দ্র ও রাজ্যকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলিতে উপযুক্ত স্বাস্থ্যকর পরিষেবা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। কারণ আইনজীবি কোলিন গনসেল্ভ আদালতে দাবি করেছেন, এই ক্যাম্পগুলিতে পরিষ্কার শৌচাগার পরিষেবা থেকে বিশুদ্ধ পানীয় জল নেই। ফলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তাঁদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে। সেখানের অবস্থা নিয়েই জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই মামলার প্রেক্ষিতেই এই নির্দেশ ও রিপোর্ট তলব করেছে দেশের শীর্ষ আদালত। এখন দেখার কেন্দ্র কি রিপোর্ট দেয় এই বিষয়ে।

head_ads