উরুগুয়েকে হারিয়ে সেমিফাইনালে ফ্রান্স

0

স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : কোয়ার্টার ফাইনালে রাতের প্রথম ম্যাচে উরুগুয়েকে ২-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে ফ্রান্স। রাফায়েল ভারানে আর আঁতোয়া গ্রিজমানের গোলে সওয়ার হয়ে কোয়ার্টারের বৈতরণী পাড়ি দিলো ফরাসিরা। অন্যদিকে কোয়ার্টার থেকেই বিদায় নিলো কাভানিবিহীন উরুগুয়ে।

এদিনের ম্যাচে পিএসজি ফরোয়ার্ড এদিনসন কাভানির অভাব ভালভাবেই টের পেয়েছে উরুগুয়ে। ইনজুরির কারণে বেঞ্চে বসে দলের পরাজয় দেখতে হয় তাকে। তার অবর্তমানে বারবার আক্রমণে উঠেও শুধু ফিনিশারের অভাবে গোলের দেখা পাননি সুয়ারেসরা। আর বার্সা তারকা সুয়ারেসকে মনে হয়েছে সঙ্গীবিহীন যোদ্ধা। আর এই সুযোগে ফরাসিরা তাদের রক্ষণ সুরক্ষিত রেখে আক্রমণ শানিয়েছে বেশ কয়েকবার।

Advertisement
head_ads

ফরাসিদের জয় নিশ্চিতের গোলটি আসে গ্রিজম্যানের পা থেকে। দ্বিতীয়ার্ধের ৬১ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে বা প্রান্ত থেকে গ্রিজম্যানের জোরালো শট ঠেকাতে গিয়ে উরুগুয়ের গোলরক্ষক ফার্নান্দো মুসলেরার হাতে লেগে বল জালে ঢুকে যায়। বলটা তার বরাবরই মেরেছিলেন গ্রিজম্যান। ফরাসি তারকা আঁতোয়া গ্রিজমানের এই গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ফ্রান্স।

এর আগে ম্যাচের ৪০ মিনিটে উরুগুয়ের ডিফেন্সে অসাধারণ হেড থেকে গোল করে ফ্রান্সকে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন ভারানে। ডানপাশ থেকে আঁতোয়া গ্রিজমানের বাড়িয়ে দেওয়া ক্রসে হেড করে উরুগুয়ের গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা।

তবে গোল খাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই আক্রমণে উঠে প্রায় গোল পেয়ে গিয়েছিলো উরুগুয়ে। কিন্তু উরুগুইয়ান ডিফেন্ডার মার্তিন কাসেরেসার দারুণ এক শট ঠেকিয়ে দেন ফরাসি গোলরক্ষক হুগো লরিস।

ম্যাচের শুরুর দিকে ফ্রান্সের ডিফেন্সকে বেশ পরীক্ষায় ফেলে দেয় উরুগুয়ে। মূলত দুই ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেস ও লুকাস তোরেইরার গতিকে পুঁজি করেই ফরাসি ডিফেন্সে আক্রমণ চালান অস্কার তাবারেজের শিষ্যরা। তবে ১৯ মিনিটে একটা সুযোগ মিস করেন ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। তবে তাতে জয় পেতে কোন অসুবিধা হয়নি দিদিয়ের দেশমের দলের।

২০০৬ সালের পর আবারও সেমিফাইনালে পা রেখেছে লেস ব্লুজরা। এই নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো সেমিফাইনালে পা রাখলো ফ্রান্স। তাদের চেয়ে এগিয়ে আর চারটি দল- জার্মানি, ব্রাজিল, ইতালি।

head_ads