সবচেয়ে কম বয়সে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে ইতিহাস গড়লেন রশীদ খান

0

স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : বয়স মাত্র ১৯ বছর ১৫৩ দিন। নিজের দেশটাও ক্রিকেটে উঠে আসছে কেবল হাঁটি হাঁটি পা পা করে। রশিদ খান। আফগানিস্তানের রহস্যময় অফ স্পিনার। টেস্ট ঘরাণার সদস্য হয়েছে এখনও এক বছর হয়নি। এমনকি এখনও টেস্টই খেলা হয়নি আফগানদের। এমতাবস্থায় সর্বকনিষ্ঠ পুরুষ ক্রিকেটার হিসেবে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে ইতিহাস গড়েছেন আফগান লেগস্পিনার রশীদ খান। ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের যৌথভাবে এক নম্বর বোলার এখন তিনি, তার সঙ্গে আছেন ভারতীয় পেসার জাসপ্রিত বুমরাহ, দুইজনেরই রেটিং পয়েন্ট ৭৮৭।

শুধু সর্বকনিষ্ঠ নয়, আইসিসির র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠা একমাত্র ‘কিশোর’-ও রশীদ। ১৯ বছর ১৫৩ দিন বয়সে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠে তিনি ভেঙেছেন সাবেক পাকিস্তানি অফস্পিনার সাকলাইন মুশতাকের রেকর্ড। ১৯৯৮ সালের জানুয়ারিতে ওয়ানডে বোলারদের শীর্ষে ওঠার সময় সাকলাইনের বয়স ছিল ৭৬৮৩ দিন। এই রেকর্ডের তালিকায় আছে সাকিব আল হাসানের নামও, ২০০৯ সালে ওয়ানডে অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে ওঠার সময় তার বয়স ছিল ৭৯৭৬ দিন।

Advertisement
head_ads

অভিষেকের পরই নিজের জাত চিনিয়েছেন। রশিদ খানকে এখন বলা হয় ‘ছোট দলের বড় তারকা’। আফগানিস্তানের এ লেগস্পিনার তার অর্জনের মুকুটে আরেকটি পালক যোগ করলেন এবার। ইতিহাসের সবচেয়ে কম বয়সী বোলার হিসেবে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে জায়গা করে নিলেন তিনি।

তবে ক্রিকেটার হিসেবে অবশ্য রেকর্ডটা ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্টেফানি টেইলরের। ২০১০ সালে মেয়েদের ক্রিকেটের টি-টোয়েন্টি ব্যাটারদের শীর্ষে ওঠার সময় টেইলরের বয়স ছিল ৬৯০৭ দিন

আইসিসির সদ্য প্রকাশিত নতুন র‍্যাঙ্কিংয়ে ছেলেদের ওয়ানডে ব্যাটিংয়ের শীর্ষে আছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি (৯০৯), দুইয়ে থাকা এবি ডি ভিলিয়ার্সের রেটিং পয়েন্ট ৮৪৪। ৩৫৯ পয়েন্ট নিয়ে অলরাউন্ডারের তালিকায় শীর্ষে সাকিব আল হাসান।

head_ads