নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে লড়াই করা টার্গেট টাইগারদের, ট্রফির জন্য ভারতের দরকার ১৬৭ রান

0
স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল আর লিটন দাস ১৯ বলের জুটিতে তুলে ফেলেন ২৭ রান। তবে ভালো শুরুর পরও আরও একবার হতাশ করেছেন লিটন। দারুণ শুরুর পর হঠাৎই যেন ছন্দপতন! ৬ রানের মধ্যে তিন উইকেটের পতন ঘটে। তামিম-সৌম্যকে ফিরিয়ে জোড়া আঘাত হানেন চাহাল। পঞ্চম ওভারে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে লং-অনে বাউন্ডারি লাইনে শারদুল ঠাকুরের হাতে ধরা পড়েন তামিম। শরীরের ভারসাম্য রেখে দর্শনীয় ক্যাচ নেন তিনি। শিখর ধাওয়ানের তালুবন্দি হন সৌম্য সরকার (১)। অাগের ওভারে অফস্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দরকে মারতে গিয়ে শূণ্যে তুলে সুরেশ রায়নার হাতে ক্যাচ তুলে দেন ওপেনার লিটন। উদ্বোধনী জুটি থামে ২৭ রানে (৩.২ ওভার)।
প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ফাইনাল বাধা টপকে প্রথমবারের মতো ট্রাইনেশন সিরিজের ট্রফি জয়ে চোখ রাখছে টিম বাংলাদেশ। রাউন্ড রবিন পর্বে ভারতকে হারাতে না পারলেও স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে দুই ম্যাচেই হতাশায় ডুবিয়ে ফাইনালের টিকিট কাটে কোর্টনি ওয়ালশের শিষ্যরা। পুরো দল এখন এখন উজ্জীবিত। চ্যালেঞ্জ এখন টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে প্রথম হারের স্বাদ দিয়ে শিরোপা উল্লাসে মাতার। প্রথম ম্যাচ হারের পর টানা তিন জয়ে তরুণদের নিয়ে সামর্থ্যের জানান দেয় ধোনি-কোহলিবিহীন ভারত।
নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ভারতের সামনে ১৬৭ রানের জয়ের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। সাব্বির রহমানের ৫০ বলে ৭৭ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৬৬ রান তুলেছে টাইগাররা। ভারতের পক্ষে ১৮ রানে ৩টি উইকেট যুজবেন্দ্র চাহালের। ২টি উইকেট জয়দেব উনাদকাতের। বাংলাদেশ আজ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যে একাদশ ছিল, সেই অপরিবর্তিত একাদশ নিয়েই মাঠে নেমেছে। তবে ভারত দলে এসেছে একটি পরিবর্তন। মোহাম্মদ সিরাজের পরিবর্তে এসেছেন জয়দেব উনাদকাত।
head_ads