ডাক্তারি প্রবেশিকায় সফলভাবে উত্তীর্ণ আরিফাকে সংবর্ধনা ফ্র্যাটারনিটি মুভমেন্টের

0

সালমা খাতুন, টিডিএন বাংলা, পানাপুকুর: প্রবল ইচ্ছাশক্তি থাকলে যে-কোনো অসম্ভবকে সম্ভব করা যায় তা প্রমাণ করে দিল লাউহাটি পানাপুকুরের বাসিন্দা এবং আল আমিন উলুবেরিয়া শাখার ছাত্রী আরিফা খাতুন। প্রথমবার পরীক্ষায় আশানুরূপ ফল না হলেও এবছর সর্বভারতীয় ডাক্তারি পরীক্ষা নিটে ১,৮৭৭র্্যাঙ্ক করে সবাইকে অবাক করে দিয়েছে।

তার প্রাপ্ত নাম্বার ৫৯৫,আর এই সফলতার জন্য তাকে ১৫-১৬ঘন্টা করে পড়তে হয়েছে।তার পরিবার আর্থিক দূর্দশা সত্ত্বেও সবসময় তাকে পড়াশোনায় উৎসাহ জুগিয়েছে।আরিফা জানিয়েছে, বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করলে তার এই ফল অসম্ভব ছিল।তার সফলতার পিছনে আল আমিন মিশনের অবদানের কথা স্বীকার করেছে আরিফা,কারণ ওখানকার পরিবেশ শুধুই পড়াশোনা,অন্য কোনো দিকে মনোযোগ দেওয়ার সুযোগই নেই।যার ফল আজ সবার সামনে। এর পরের সফরটা তার কাছে সহজ নয়।একে আর্থিক দূর্দশা তার উপর সংখ্যালঘু মেয়ে।কারণ আজও আমাদের সমাজের অনেকেই মেয়েদের উচ্চশিক্ষার বিপক্ষে।আরিফার ইচ্ছা ভবিষ্যতে নিউরোলজিস্ট হওয়ার।

এদিন আরিফা খাতুনকে সংবর্ধনা জানাতে তার বাড়িতে উপস্থিত হন ছাত্র সংগঠন ফ্র্যাটারনিটি মুভমেন্টের প্রতিনিধিরা।ফ্র্যাটারনিটির রাজ্য সেক্রেটারি জুলফিকার আলি মোল্যা আরিফার সাফল্যের ভূয়সী প্রশংসা করে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন।