ইসলামপুরে লরি ও লছিমনের মুখোমুখি সংঘর্ষ, গুরুতর জখম ১৫

0

কিবরিয়া আনসারী, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: মুর্শিদাবাদ জেলার ইসলামপুরে লরি ও লছিমনের মুখোমুখি সংঘর্ষে গুরুতর জখম হলেন ১৫ জন যাত্রী। শেখপাড়া বহরমপুর রাজ্য সড়কের ঘটনা। ঘটনাটি ঘটেছে ৬ টা নাগাদ ইসলামপুরের গ্রামীণ হাসপাতাল মোড়ে। এদিনের ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছে ১৫ জন যাত্রী।

স্থানীয় বাসিন্দা সামিউল ইসলাম বলেন, লছিমন গাড়ি টি মোড়ে দাড়িয়ে মানুষদের নামাচ্ছিলেন। সেই সময় একটি লরি বেপরোয়া ভাবে দ্রুত গতিতে এসে লছিমন টি কে ধাক্কা মারে। সঙ্গে সঙ্গে লছিমন টি উল্টিয়ে যায়। আমরা ছুটে গিয়ে তাদের উদ্ধার করি। প্রায় ১৫ জন গুরুতর জখম ব্যক্তিদের ইসলামপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ৫ জনের অবস্থা আশঙ্খাজনক হওয়াই সঙ্গে সঙ্গে তাদের মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে রেফার করা হয়। আহত ১০ জনের অবস্থা স্বাভাবিক হওয়াই তাদের ইসলামপুর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দূর্ঘটনা গ্রস্থ গাড়ি দুটি কে আটক করেছে ইসলামপুর থানার পুলিশ।

জখম যাত্রীর আত্মীয়দের অভিযোগ হাসপাতালে ভালো করে চিকিৎসা না করেই রেফার করা হচ্ছে। ডাক্তার ভালো করে দেখছেই না। মাথাই শেলায়ের দরকার। শুধু ব্যান্ডেজ করেই ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে।

জখম যাত্রীর আত্মীয় ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, মাথা অনেক টা ফেঁটে গিয়েছে। শেলায় না করেই শুধু একটি ব্যান্ডেজ করে ছেড়ে দিচ্ছে ডাক্তাররা। এতোগুলো মানুষ জখম হয়েছে। কিন্তু হাসপাতাল কতৃপক্ষের কোনো হেলদোল নেই। শুধু দেখছে আর রেফার করছে। আজ বহরমপুর নিয়ে যেতে যেতেই রক্তপাত হয়ে রোগী রাস্তাই মারা যাবে। সেই দায়ভার কি হাসপাতাল কতৃপক্ষ নেবে। নাকি আমরা গরীব বলে আমাদের চোখের সামনে বিনা চিকিৎসায় রোগী মারা যাবে।

হাসপাতালের এক নার্স বলেন, আমরা কি করব বলুন। ডাক্তার বাবুরা যা বলে আমাদের সেটাই করতে হয়। তবে শেলায় না করে ছেড়ে দেওয়া টা আমাদের ভুল হয়েছে।