চিকিৎসার গাফিলতিতে শিশু মৃত্যুর অভিযোগ, উত্তেজনা ডোমকল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে

0

কিবরিয়া আনসারী, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ : শিশু মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো ডোমকল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার ডোমকল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। মৃত শিশুর নাম আল হেলাল আহম্মেদ (৭ মাস)। চিকিৎসার গাফিলতিতে শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করে শিশুর পরিবার। এই ঘটনায় হাসপাতাল চত্ত্বরে বিশাল উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। ঘটনাস্থলে ডোমকল থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। মৃত শিশুর বাড়ি জলঙ্গী থানার ফরিদপুর গ্রামে।

জানা গিয়েছে, আজ সকাল থেকে শিশুটি চার বার পাতলা পায়খানা করে। তারপরই জ্বরে কাতর হয়ে পড়ে। আনিসুর রহমান তার সাত মাসের শিশুকে এগারো টার সময় ডোমকল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে নিয়ে এলেও ঘন্টার পর ঘন্টা কেটে গেলে ডাক্তাররা কোনো চিকিৎসা করেনি বলে অভিযোগ করেন শিশুর মা।

শিশুর মা জুলেখা বিবির অভিযোগ, আমার ছেলেকে ডাক্তাররা মেরে ফেলল। ডাক্তাররা আমার ছেলেকে একটি বারও দেখেনি। সময় মতো চিকিৎসা করলে আমার ছেলে বেঁচে যেত।

অপরদিকে শিশুর বাবা আনিসুর রহমান বলেন, এগারো টার সময় ছেলে কে নিয়ে এসেছি। একবার বলছে বাইরে গিয়ে ডাক্তার দেখাতে। কখনও বলছে ডাবের জল খাওয়াতে। এই ভাবেই আমাকে দৌড়ে নিয়ে বেড়িয়েছে ডাক্তাররা। বারবার বলার সত্ত্বেও ছেলেকে ভর্তি করেনি কেও। ছেলের অবস্থা খারাপ হলে তখন ভর্তি করিয়ে নেয়। ভর্তি করার পর কোনো প্রকার চিকিৎসা করেনি ডাক্তাররা। দু-ঘন্টা পর একটা ইনজেকশন দেয় নার্স। তারপরই ছেলে মারা যায়।

হাসপাতাল সুপার প্রবীর মান্ডি জানান, ছেলেটি আগেও ভর্তি ছিল। রবিবার একটু সুস্থ হলে বাড়ি নিয়ে যায় অভিভাবকেরা। আজ অসুস্থ হলে আবার নিয়ে আসেন। সাধ্যমতো চিকিৎসা চলছিল। তবুও বাঁচানো যায়নি।