এনআরসি নিয়ে অনিয়ম, অন্যায় ও পক্ষপাতিত্বের বিরুদ্ধে অসম ভবনে ডেপুটেশন

0

সেখ রাহানাতুল্লাহ,টিডিএন বাংলা, কলকাতা :
এনআরসি নিয়ে অনিয়ম, অন্যায় ও পক্ষপাতিত্বের বিরুদ্ধে কলকাতার রাসেল স্ট্রিটে অবস্থিত অসম ভবনে ডেপুটেশন দিলো বাঙাললিরা। সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশন ও জয়েন্ট আ্যকশন কমিটি ফর বাঙালি রিফিউজির পক্ষ থেকে আসাম সরকার ও এনআরসির কর্তাদের কাছে দাবি জানানো হয়েছে, নাগরিকত্ব নিয়ে যেন কাউকে হয়রানি করা না হয়।

বাঙালিদের অভিযোগ, আসামের ডিটেনশন ক্যাম্পে মানবাধিকার হরণ হচ্ছে। আর ক্যাম্পের বাইরের মানুষদের ডিটেনশন ক্যাম্পে ভরার চেষ্টা চলছে। জেলের চেয়েও ভয়ঙ্কর জায়গা হচ্ছে ডিটেনশন ক্যাম্প। বিদেশি নায়াধিকরণের বিচারকরা বা সদস্যরা দুই বছরের চাকরি পাওয়া শাসক গোষ্ঠীর চুক্তিভিত্তিক ঠিকাদার। শাসক গোষ্ঠীকে খুশি করার জন্য দেশের মানুষকে বিদেশি বলে উল্লেখ করা হচ্ছে।

এদিন সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের রাজ্য সম্পাদক মুহাম্মদ কামারুজ্জামান বলেন, “নাগরিকত্ব নিয়ে আসামে যা হচ্ছে তা মানবাধিকার লঙ্ঘনের সামিল। এনআরসি নিয়ে অনিয়ম চলছে। এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই ছাড়াও রাজপথে আন্দোলন হবে।”
এদিন আসাম ইস্যুতে বিক্ষোভ দেখানো হয়। উপস্থিত ছিলেন উদ্বাস্তু ও দলিত নেতা সুকৃতি রঞ্জন বিশ্বাস, সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের অধ্যাপিকা শর্বানী ব্যানার্জী, সুরজিৎ দাস, নাজমুল আরেফিন, মহ: মোকতার মোল্লা প্রমুখ।