মহকুমা অফিসে ফের বিক্ষোভে সামিল ডোমকলের প্রতারিত নার্সিং পড়ুয়ারা

0

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, ডোমকলঃ ওরা কেউ বিড়ি বেঁধে, কেউ বা দিনমজুরের কাজ করে টাকা জোগাড় করে একটি স্থায়ী কাজের আশায় ডোমকল নার্সিং এন্ড প্যারামেডিক্যাল হেল্থ সেন্টারে ভর্তি হয়েছিল। কিন্তু টাকা আত্মসাৎ করে ছাত্র-ছাত্রীদের ভুয়ো সার্টিফিকেট দেওয়ার অভিযোগ তুলে রবিবার সন্ধ্যায় ডোমকল থানায় বিক্ষোভ দেখায় পড়ুয়ারা। ঐ বেসরকারি নাসিং ট্রেনিং সেন্টারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করতে গেলে পুলিশ অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে বলে অভিযোগ পড়ুয়াদের। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়ায় থানা চত্বরে। ক্ষুদ্ধ পড়ুয়ারা আজ ফের দুপুরে ডোমকল মহকুমা শাসকের অফিসে বিক্ষোভ দেখাল।

এক ছাত্র জানায়, ডোমকল থানায় লিখিত অভিযোগ করতে গেলে পুলিশ অভিযোগ নেয়নি। পুলিশ আমাদের কোনো কথাই শোনেনি। পাল্টা পুলিশ জানায় আমরা অভিযোগ করলে নার্সিং ট্রেনিং সেন্টার কর্তৃপক্ষও ছাত্র-ছাত্রীদের নামে অভিযোগ করবে। আজ ফের আমরা মহকুৃমা শাসকের দারস্ত হয়েছি।

জানা গিয়েছে, ভারত সরকার দ্বারা অনুমোদিত সেন্টার বলে পড়ুয়াদের কাছ থেকে ৭ হাজার, ১০ হাজার, ১২ হাজার এমনকি ২৫ হাজার করে টাকা নিয়ে তাদের চাকরির প্রতিশ্রুতি দেয় ডোমকল নার্সিং এন্ড প্যারামেডিক্যাল হেল্থ সেন্টার। ছাত্র-ছাত্রীদের ট্রেনিং শেষ হয়ে গেলেও মিলছে না সার্টিফিকেট। আজকাল করে ছাত্র-ছাত্রীদের ঘুরিয়ে যাচ্ছে সেন্টারটি। এক ছাত্রীর কথায়, আমাদের সার্টিফিকেট চাই না। আমাদের টাকা ফেরৎ চাই। আর ওই সেন্টার কর্তৃপক্ষের যথাযথ শাস্তি চাই।

ছাত্র সানোয়ার মন্ডল জানান, গতকাল ডোমকল থানায় বিক্ষোভ করেছিলাম। পুলিশ আমাদের কোনো সহযোগিতা করেনি। সেন্টার কর্তৃপক্ষে ধরে আনলেও পুলিশ ছেড়ে দেয়। আম আমরা মহকুমা শাসকের দারস্ত হয়েছি সু-বিচারের আশায়। আমাদের দাবি টাকা ফেরৎ দিতে হবে। সেন্টার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিতে হবে।