কিবরিয়া আনসারী, টিডিএন বাংলা, ডোমকল: শ্বশুরবাড়ি নিমন্ত্রণ খেতে গিয়ে জামাইয়ের রহস্যমৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল ডোমকলে৷ ঘর থেকে উদ্ধার হল ঝুলন্ত দেহ৷ মৃতের নাম নুরাবুল ইসলাম (২১)। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে ডোমকল থানার আমিনাবাদ এলাকায়।

স্থানীয়রা জানান, ১১ মাসে আগে ডোমকলের আমিনাবাদের বাসিন্দা সামিমার সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল বছর একুশের নুরাবুলের। ভালোবেসে বিয়ে করার পর থেকে স্বামী-স্ত্রী মধ্যে শুরু হয় অশান্তি৷ রবিবার ইদের দিন রাতে শ্বশুরবাড়ি নিমন্ত্রণ খেতে গিয়েছিল সে। সকালে ফোনে খবর আসে নুরাবুল গলাই দড়ি দিয়েছে। পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে।

মৃতের আত্মীয় আজিজুল ইসলাম জানিয়েছেন, স্বামী স্ত্রী এক ঘরেই ছিল। ঘরে ওড়নার ফাঁস লাগানো অবস্থায় নুরবুলের দেহ ঝুলছিল৷ ছেলে গলাই দড়ি দিল কেও বুঝতে পারল না। গলা টিপে খুন করার পর তাকে ঝুলিয়ে দেয় শ্বশুরবাড়ির লোকেরাই। ছেলে আত্মহত্যা করতেই পারে না। শ্বশুরবাড়ির লোকেরা কিছু নাই জানলে তারা ঘরে তালা মেরে পালিয়ে গেল কেন প্রশ্ন মৃতের পরিবারের।