আগামী অধিবেশনেই মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি তুলবো : কংগ্রেস বিধায়ক মইনুল হক 

0

এম সালাহউদ্দিন ও বেলাল মোমিন, টিডিএন বাংলা, ফারাক্কা : আগামী বিধানসভা অধিবেশনে ফের মুর্শিদাবাদে  বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি  তুলবেন বলে জানালেন মুর্শিদাবাদের ফারাক্কার কংগ্রেস বিধায়ক মইনুল হক। তিনি আজ ফারাক্কা সৈয়দ নুরুল হাসান কলেজের মাঠে নবীন বরণ উৎসবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জেলাবাসীর উদ্দেশ্যে এই আশ্বাস বানী দেন। আজ ২০১৮ -র নতুন শিক্ষার্থীদের নতুন করে বরণ করে নেওয়ার অনুষ্ঠান শুরু হয় বেলা ১১ টার সময় থেকে, সৈয়দ নুরুল হাসান কলেজের মাঠে। বরণ করার সাথে সাথেই আয়োজিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে বিবেচিত হন সুজাতা দত্ত।

Advertisement
head_ads

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন গভর্নমেন্ট নমিনি সৌমেন মিত্রের প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে। তার পরেই উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন কলেজেরই দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী, তবলায় সহযোগিতা করেন কলেজের হেড ক্লার্ক অরুণময় দাশ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কলেজের সূচনালগ্নের সাথী তথা প্রাক্তন সাংসদ আবুল হাসনাত খান, ফারাক্কা বিধানসভার বিধায়ক মইনুল হক, এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কলকাতা থেকে আগত একঝাঁক ব্যান্ড শিল্পী।

বাউল শিল্পী শিশির কুমার দাশ গান গেয়ে করতালিতে ভরিয়ে দেন অনুষ্ঠান। প্রাক্তন সাংসদ আবুল হাসনাত খান বলেন, আমাদের এই ফারাক্কা কলেজের স্থাপনের শুরু থেকে আমি এর সঙ্গে রয়েছি, এই কলেজ স্থাপনের পর থেকে আমাদের এলাকায় মেয়েদের শিক্ষার আগ্ৰহ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং তারা উচ্চ শিক্ষা গ্ৰহণ করছে।

অন্যদিকে  মুর্শিদাবাদে ইউনিভার্সিটি স্থাপন সম্পর্কে ফারাক্কা বিধানসভার বিধায়ক মইনুল হক বলেন,  “আমার মনে হচ্ছে ফারাক্কা কলেজ এর মতো এত বড়ো জায়গায় ইউনিভার্সিটি স্থাপনের আদর্শ স্থান। ফারাক্কা কলেজের এত বড়ো মাঠ , আমরা চাইলে পার্শের আরো দু চার দশবিঘা জমি নিতে পারবো। এত বড় জায়গা মুর্শিদাবাদে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর তাই আমার মনে হয় এই জায়গাই ইউনিভার্সিটি স্থাপনের জন্য আদর্শ। তাছাড়া আগামী অধিবেশনে আমরা আবার ইউনিভার্সিটির জন্য বিধানসভায় দাবি তুলব।” অনুষ্ঠানে নাচ,গান, কবিতা, হাস্য কৌতুক এসবের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের ময়দানকে মাতিয়ে রাখেন নুরুল হাসান কলেজের প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীরা।

head_ads