২১শে মার্চ রানাঘাটে সাড়ম্বরে পালিত হল আন্তর্জাতিক কবিতা দিবস

0
মোহাম্মদ শাহবাজ, টিডিএন বাংলা, রানাঘাট: বুধবার রানাঘাট পৌরভবন প্রাঙ্গনে ‘উচ্চারণ’ বাঁচিক শিল্পী গোষ্ঠীর উদ্যোগে পালিত হলো আন্তর্জাতিক কবিতা দিবস। শিশুকিশোর দের মিষ্টি কণ্ঠে কবিতায় মুগ্ধ হলো পৌরভবন প্রাঙ্গন সহ রানাঘাট বাসী। কবিতা ভালোবাসেনা এমন মানুষ খুবই কম। বাণিজ্যমুখী-বিজ্ঞাননির্ভর আজকের এ দুনিয়ায় কবিতার প্রাসঙ্গিকতার বিষয়টি আজ ভাবনার টেবিলে জায়গা করে নিয়েছে। আজ ২১ শে মার্চ, বিশ্ব কবিতা দিবস। ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো এই দিনটিকে বিশ্ব কবিতা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে।
এই দিবস পালনের উদ্দেশ্য হল বিশ্বব্যাপী কবিতা পাঠ, রচনা, প্রকাশনা ও শিক্ষাকে উৎসাহিত করা। পূর্বে অক্টোবর মাসে বিশ্ব কবিতা দিবস পালন করা হত। প্রথমে ৫ অক্টোবর এবং বিংশ শতাব্দীর শেষভাগে রোমান মহাকাব্য রচয়িতা ও সম্রাট অগস্টাসের রাজকবি ভার্জিলের জন্মদিন স্মরণে ১৫ অক্টোবর এই দিবস পালন করা হত। বিভিন্ন দেশে বিভিন্নভাবে পালন করা হয় কবিতা দিবস।
মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন পুরপ্রধান শ্রী পার্থ সারথি চট্টপাধ্যায়। উপ পুরপ্রধান বিজয় প্রসাদ মল্লিক।বসাংবাদিক সফিকুল ইসলাম, কবি আরণ্যক বসু প্রমুখ। আজ অনুষ্ঠানে সকলের একটাই ‘আবদার’ বিশ্ব কবিতা দিবসে কবিতা ছড়িয়ে যাক সকল মানুষের হৃদয়ে। বিশিষ্ট অতিথি গণকে ‘নেচার ফার্স্ট’ দেওয়া গাছ দিয়ে বরণ করা হয়।
শিশুকিশোর দের উপস্থাপনায় ‘আবোল তাবোল’ , চন্দ্রোজিত প্রামানিক এর পরিচালনায় উচ্চারণ বাঁচিক শিল্পী গোষ্ঠী পরিবেশিত হয় ‘অপরাজিতা’ কবিতার মাধ্যমে নারী শক্তি তুলে ধরা হয়। ‘সেজতি’ শিল্প গোষ্ঠীর শিশু কিশোরদের কবিতা পাঠ দর্শকাশনে বসে থাকা সকলের মন জয় করে নেয়।
উচ্চারণ সমর্দনা, দেওয়া হয় রানাঘাটের বিশিষ্ট জন দের। ‘চূর্ণী’ সারদ সম্মান প্রদান করা হলো  শ্রী অদ্রির কুমার মন্ডল (সাংবাদিক)।সরদ সম্মান প্রদান করলেন সাংবাদিক সুজিত মন্ডল, পার্থ কর। কবি আরণ্যক বসু।