ইসলাম শিখিয়েছে বিশ্বভ্রাতৃত্ব ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি : মুহাম্মদ নুরুদ্দিন

0

সামাউল্লাহ মল্লিক, টিডিএন বাংলা, মেমারী : দেশ তথা বিশ্বজুড়ে চলমান হিংসার রাজনীতির যে তিনি ঘোর বিরোধি, তা আবারও বুঝিয়ে দিলেন সুপ্রসিদ্ধ শিশু সাহিত্যিক তথা জামাআতে ইসলামি হিন্দের রাজ্য সভাপতি মুহাম্মদ নুরুদ্দিন। শনিবার মেমারীর জামিয়া ইসলামিয়া মদীনাতুল উলুম মাদ্রাসার ৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আজ মুসলিম দেশগুলিতে আগুন জ্বলছে, মরছে মুসলিম উম্মাহ। আমরা ভারতের মুসলমানরা নিরাপত্তার অভাব বোধ করছি। বিশ্বজুড়ে আমরা অপরাধী জাতি হিসেবে চিহ্নিত হচ্ছি। ইসলামকে আজ অশান্তির ধর্ম বলে উল্লেখ করা হচ্ছে। অথচ ইসলামই শিখিয়েছে বিশ্বভ্রাতৃত্ব ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি।’

তিনি দেশের বর্তমান রাজনীতিকে ‘অরাজকনীতি’ আখ্যা দিয়ে বলেন, ‘ভারতে মসজিদ ধ্বংস হচ্ছে। মুসলিম পারসোনাল ল’ উঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কোরআনের আয়াত বাদ দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। মাদ্রাসা মানুষ তৈরীর কারখানা। আমাদের ভাবতে হবে, বুঝতে হবে, শিখতে হবে। কোরআন-রাসুলের দিকে ফিরতে হবে। তবেই দেশজুড়ে চলমান অরাজকনীতি বন্ধ করা সম্ভব হবে।’ তার কথায়, ‘ভালো কাজের জন্য আমাদের বাছাই করা হয়েছে, খলিফা বানানো হয়েছে। আজ মুসলিম সমাজ পদদলিত। জাহেলিয়াতের যুগে ফিরে গেছি আমরা। অশিক্ষার অন্ধকারে ডুবে গেছি। আমরা সব জানি, বিভিন্ন বিষয়ে আমরা শিক্ষা লাভ করেছি, কিন্তু দ্বীন সম্পর্ক আমরা অজ্ঞ হয়ে গেছি। আজ নামাজ, রোজা, টুপি দ্বীন হয়ে গেছে।’