নন্দীগ্রাম আন্দোলনে জমিয়তের বিরাট ভূমিকা ছিল, সেখানে তৃণমূল কেন প্রার্থী নিয়ে আলোচনা করেনি? উঠছে প্রশ্ন

0

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা : নন্দীগ্রামের ঘটনার পর প্রথম অবস্থায় মাটি কামড়ে পড়ে থেকে আন্দোলন করেছিল জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ ও এসইউসিআই। বিভিন্ন সংগঠন নন্দীগ্রাম কান্ডের বিরোধীতা করলেও প্রথমে মাঠে ছিল জমিয়ত। পরবর্তীতে তৃণমূল সেখানে আন্দোলন নিজের দখলে নিয়ে নেয়। কিন্তু যে নন্দীগ্রামে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের এতো প্রভাব সেখানে এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের পক্ষ থেকে কোনও টিকিট দেয়নি জমিয়তকে। বিধান সভায় জমিয়ত থেকে দুইজন প্রতিনিধি তৃণমূলের প্রতীকে ভোটে দাঁড়ান। কিন্তু এবারের পঞ্চায়েতে পুরো উপেক্ষা করা হয়েছে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দকে। নন্দীগ্রাম আন্দোলনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মাওলানা আব্দুস সামাদ। তিনি টিডিএন বাংলাকে বলেন,”প্রার্থী দেওয়া দূরের কথা,তৃণমূলের টিকিট নিয়ে জমিয়তে উলামায়ের নেতাদের সাথে আলোচনাও করেনি। আমার সাথেও না। তবে আমরা এমন কিছু করতে চাইনা যাতে বিজেপি বাংলায় জায়গা পেয়ে যায়।”
জমিয়তের অন্দরে প্রশ্ন, কেন তৃণমূল নন্দীগ্রামের মতো জায়গায় প্রার্থী নিয়ে জমিয়তকে ডাকলো না বা আলোচনা করলো না? কাকে খুশি করতে এতো বড়ো একটা সংগঠনকে অবজ্ঞা? নাকি শুধু বিধান সভা ভোটে দুটি টিকিট দিয়ে পঞ্চায়েত, লোক সভা,পৌরসভা সহ সব নির্বাচনে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের কর্মীদের ভোট ব্যাঙ্ক হিসাবে ব্যবহার করবে তৃণমূল? প্রশ্ন কিন্তু থেকেই যাচ্ছে।

tdn_bangla_ads