যুগ্মভাবে নবম ও দশম স্থানাধিকারী রফিকুল হাসান ও তামান্না ফিরদৌস কালিয়াচকের গর্ব

0

সাদ্দাম হোসেন, টিডিএন বাংলা, কালিয়াচক: রাজ্য স্কুল বোর্ড পরীক্ষায় ৬৮০ নম্বর পেয়ে রাজ্যে দশম স্থান মালদা মধ্যে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে তামান্না ফিরদৌস।

তামান্না ফিরদৌস বাড়ি মালদা জেলার কালিয়াচক থানার কাসিম নগর গ্রামে। বাবা মুনসুর আলী পেশায় উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষক । মজেমপুর হাইস্কুল থেকে পড়াশুনা করত তামান্না। প্রথম থেকেই পড়াশুনায় ভালো তামান্না ৬৮০ নম্বর পেয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে এলাকাবাসীকে। তার প্রাপ্ত নম্বর ৬৮০ বিষয় ভিত্তিক নম্বর বাংলা-৯৫, ইংরেজি- ৯৪, অংক-১০০, ইতিহাস- ৯৮, ভূগোল- ৯৫, ভৌত বিজ্ঞান-৯৮, জীবন বিজ্ঞান-১০০,

কালিয়াচকে থানার ভাগলপুর কাসিম নগর প্রান্তিক গ্রামের বসবাস । প্রসঙ্গত একটা সময় ছিল কালিয়াচক নাম শুনলে মনে আতঙ্ক তৈরি হত খুনোখুনি, মারামারি, বোমাবাজির কথা আসত কিন্তু আজ সেই কালিয়াচক গোলাবারুদের জায়গায় শিক্ষার আলোতে আলোকিত হয়ে উজ্জ্বল নক্ষত্র তৈরি হচ্ছে যার দৃষ্টান্ত তামান্না ফিরদৌস ও রফিকুল হাসান। ভবিষ্যতে আইএএস হয়ে গ্রামের মানুষদের সেবা করতে চাই তামান্না ফিরদৌস ।

আরও পড়ুন-রাজ্যের অন্যান্য জেলার মতই মাধ্যমিকে নবম স্থানাধিকারী নদীয়ার সৈকত সিংহ রায়

তামান্না ফিরদৌস বলেন আজকের মেয়েরা নানান অবহেলার শিকার, আমি আইএএস হয়ে মেয়েদের দুর্দশা ও বঞ্চিত মানুষের পাশে থাকতে চাই। তার সাফল্য খুশি পরিবারের সকলে।
বাবা মুনসুর আলী বলেন, মেয়ের সাফল্য আনন্দিত আমরা। তামান্না ফিরদৌস আইএএস হয়ে দেশের মানুষদের সেবা করবে,এটা আমাদের আশা। তামান্নার এই সাফল্য গর্বিত গোটা গ্রাম এমনকি এলাকাবাসীরা।

আরও পড়ুন-স্টার পেয়ে ফাজিলনগরের দিনমুজুর সন্তান আরিফ আনসারী স্বপ্ন দেখছে বিডিও হবার

প্রধান শিক্ষক উজির হোসেন জানান বহু প্রত্যাশিত ফল, যারা আমাদের বিদ্যালয় নিয়ে কুৎসা ছড়াতো তাদের যোগ্য জবাব দিয়েছে রফিকুল হাসান, তামান্না ফিরদৌস।