সামাউল্লাহ মল্লিক, টিডিএন বাংলা,কলকাতা : ধর্মতলায় টিপু সুলতান মসজিদের সামনে ইমাম বরকতির নেতৃত্বে জুম্মার নামাজের পরে নরেন্দ্র মোদী, অরুন জেটলি, অমিত শাহের মত বিজেপির বাঘা বাঘা নেতৃত্বের কুশপুতুল পোড়াল কিছু মুসলিম। দেশে টাকা সমস্যা নিয়ে জনতা রোষের মাথায় লাথি, ঝাঁটা, জুতো দিয়ে কুশপুতুলে আঘাত করেন এবং ‘মোদী হায় ,হায়’ স্লোগানে রাস্তায় নেমে আসে। মাওলানা বরকতি জুমার খুৎবায় বলেন,”আমরা ইউনিফর্ম সিভিল কোড মানছি না। আমরা মুসলমানরা ২০ তারিখের মুসলিম পারসোনাল ল’য়ের সভায় উপস্থিত হয়ে তা দেখিয়ে দেব।” বরকতি বাংলা তথা ভারতের মুসলমানদের দলাদলি ভুলে এক হওয়ার আহ্বান জানান। খুৎবায় ইউনিফর্ম সিভিল কোডের পাশাপাশি তিন তালাক, ভোপাল ফেক এনকাউন্টার এবং ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের চরম নিন্দা করে মোদী সরকারকে তুলোধনা করেন বরকতি সাহেব। উনি রাজ্য সরকারের প্রশংসা করে বলেন, একমাত্র মমতা ব্যানার্জী এ দেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার যোগ্য, কিন্তু এ রাজ্যের বামেরা এবং দেশের কংগ্রেস মমতার বিরোধিতা করছে। তবে জুমার পর টিপুসুলতান মসজিদের ইমাম ধর্মতলার রাস্তা অবরোধ করে বক্তব্য দেন।ইমাম বলেন,”ভারতে অনেক প্রধানমন্ত্রী দেখেছি।প্রধানমন্ত্রীকে অপমান মানে করা মানে গোটা দেশকে অপমান করা।কিন্তু এই প্রধানমন্ত্রীকে মানুষ ঘৃনা করে।”এর পর তিনি কর্মীদের নির্দেশ দেন,কুশপুত্তলিকা দাহ করতে।বরকতির কথা মত নরেন্দ্র মোদী,অরুনজেটলি ও অমিত শাহের কুশপুত্তলিকা পড়ানোহয়।ঘটনা স্থলে বহু পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।মোদির নোট বদলের সিদ্ধান্তের ফলে মানুষের কী সমস্যা হচ্ছে তা নিয়েও বক্তব্য দেন ইমাম।তিনি বলেন,”গোটা দেশ লাইনে দাঁড়িয়ে।হিন্দু মুসলিম সবার সমস্যা হচ্ছে।মানুষের সমস্যা হচ্ছে।” #টিডিএন বাংলা
101-2 101-1