নিখিলবঙ্গ কবিতা উৎসব ও প্রতিযোগিতা ২০১৮ অনুষ্ঠিত হল শরৎচন্দ্রের বাসভবনে

0

হামিম হোসেন মণ্ডল, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: মঙ্গলবার কলকাতায় অমর কথাসাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাসভবনে যুথিকা সাহিত্য পত্রিকা ও বিশ্ববঙ্গ বাংলা সাহিত্য একাডেমির উদ্যোগ ও পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়ে গেল এক উল্লেখযোগ্য সাহিত্য অধিবেশন ‘নিখিলবঙ্গ কবিতা উৎসব ও প্রতিযোগিতা – ২০১৮’। এবছরে এই কবিতা প্রতিযোগিতায় প্রধানত রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ডাক মার্ফত জমা পড়েছিল ৫হাজার ২৩টি কবিতা, বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে যে কেউ ১টি স্বরচিত বাংলা কবিতা পাঠিয়ে অংশগ্রহণ করতে পারেন এই ভিত্তিতে। সেই সব কবিতা বিশিষ্ট নির্বাচন মণ্ডলির দ্বারা মুল্যায়িত হয়ে প্রথম থেকে দশম স্থান দখল করেছে মোট ৫৪টি কবিতা। সেই কবিদের কবি সম্মাননাপত্র ও স্মারক তুলে দেয় যুথিকা।

এদিন একগুচ্ছ নতুন ব‌ইসহ যুথিকা সাহিত্য পত্রিকার ইংরেজি নববর্ষ সংখ্যা প্রকাশ পায়। এছাড়া আর‌ও একটি নতুন সাহিত্য পত্রিকা অমরজিৎ মণ্ডল সম্পাদিত ‘কবিতারাও কথা বলে’র প্রথম সংখ্যা উদ্বোধন ঘটে। প্রকাশিত ব‌ইগুলির মধ্যে ছিল –   সুতপা পূততুণ্ডর তিলোত্তমা, সঞ্জয় কুমার মুখোপাধ্যায়ের ইচ্ছা পাখীর স্বপ্ন, প্রবীর দাসের সদ্যোজাত, পলাস মণ্ডলের অম্লমধু, জামীনুর মোল্লার এক ফোঁটা অশ্রু, সুনীল মণ্ডলের তিন নম্বর চোখ, অমরজিৎ মণ্ডলের হাইকু শূন্যের চৌকিঠ। অনুষ্ঠানে বিশিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কাব্যভারতী কবি দেবপ্রসন্ন বসু, গল্পকার উপল দত্ত, প্রধান অতিথি হিসেবে অধ্যাপক অচিন্তম চট্টোপাধ্যায়, বিশেষ অতিথি শিকাগো থেকে কবি মারিয়া হোসেইন, কবি অজিতেশ নাগ, প্রমুখ।

আয়োজক যুথিকা পত্রিকার সম্পাদক বলেন, আমরা প্রতি বছর এমনভাবে কবিতা প্রতিযোগিতার আয়োজন চালিয়ে যেতে চায়। গতবারের তুলনায় এবছরে দ্বিগুনের‌ও বেশি সাড়া মিলেছে। অনুষ্ঠানে সঙ্গিত পরিবেশন করেন সুতপা পততূণ্ড। কবি কাজল দাসের কবিতা নিয়ে পাঠ করেন আবৃতিকার রজত গোস্বামী। এছাড়া উপস্থিত অংশগ্রহণকারী কবিরাও একে একে তাঁদের স্বরচিত কবিতা পাঠ ও আবৃতি করেন।