সেখ সাদ্দাম হোসেন, টিডিএন বাংলা, ফুরফুরা: তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্ধে নিহত বাসন্তীর ৯বছরের শিশু রাকিবুল থেকে সিভিক পুলিশের মারে নিহত মধ্যমগ্রামের সৌমেন দেবনাথের হত্যাকারীর কঠিন শাস্তির দাবী জানালেন ফুরফুরা শরীফ আহলে সুন্নাতুল জামাতের কর্নধার পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী। তিনি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে নিহতদের পরিবারের প্ৰতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এর সুবিচারের দাবী জানান।

হেলমেট না থাকায় দুর্ঘটনায় নিহত হবার ঘটনা অনেক। কিন্তু হেলমেট না থাকায় সিভিক পুলিশের গুন্ডা গিরিতে মৃত্যু দেখল রাজ্য। রাজ্যে ক্রমেই বেড়ে চলেছে সিভিক পুলিশের দাপট। প্রায়শই পথ চলতি মানুষের সাথে বচসা হতে দেখা যায়। কিন্তু সেই বচসার শেষ পরিণতি যে তার প্রাণ কেড়ে নেবে সেটা বোধহয় ভাবতে পারেননি সৌমেন বাবু। ঘটনার সূত্রপাত মধ্যমগ্রামে সৌমেন দেবনাথ (৪৫) নামের এর ব্যক্তির সঙ্গে ভলান্টিয়ারদের বাদানুবাদ থেকে। স্থানীয় জনতার দাবি, হেলমেট না পরার কারণে সৌমেনবাবুর স্কুটার আটকানোর পরে তাঁর কাগজপত্র দেখতে চাওয়া হয়। এর পর তাঁর কাছ থেকে টাকা চাওয়া হয় বলে অভিযোগ। তিনি ওই টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়। তাঁকে উদ্ধার করে মধ্যমগ্রাম গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরিবারের একমাত্র উপার্জন কারী সৌমেন বাবুর দুই মেয়ে। একজন অষ্টম শ্রেণীতে পড়ে আর একজন কলেজে পড়ে। তাই তার পরিবারের একজনকে অতি শীঘ্রই চাকরি দেবার পাশাপাশি মেয়েদের পড়াশোনায় যাতে ক্ষতি না হয় তার ব্যবস্থা করারও দাবী জানান ঐ পীরজাদা।
পাশাপাশি বাসন্তিতে তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বে নিহত ৯বছরের শিশুর হত্যাকারীর কঠিন শাস্তির পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণ ক্ষতিপূরনের দাবীও জানান। তিনি বলেন, “এভাবে চলতে থাকলে মানুষ প্রশাসনের উপর থেকে আস্তা হারাবে। যা কামনীয় নয়। তাই রাজ্য সরকারের কাছে অনুরোধ করবো এ ধরণের ঘটনা আর যেন না ঘটে তার ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।”