মাধ্যমিকে নবম ও দশম দুইজনেই মালদার আবাসিক মিশন টার্গেট পয়েন্ট স্কুলের

0

নিজস্ব সংবাদদাতা, টিডিএন বাংলা, কলকাতা : এবার মাধ্যমিকে নবম ও দশম দুই জনেই মালদার আবাসিক মিশন টার্গেট পয়েন্ট স্কুলের। নজিরবিহীন এই ফল দেখে খুশি মিশন কর্তৃপক্ষ। টার্গেট পয়েন্ট স্কুলের  সম্পাদক এবং প্রধান শিক্ষক মহম্মদ উজির হোসেন টিডিএন বাংলাকে বলেন,” আমরা প্রত্যন্ত এলাকার সাধারণ মানের ছেলেমেয়েদের ভর্তি নিই। এই সফলতা আমাদের আরও এগিয়ে যেতে উৎসাহ দেবে। এই সফলতার কারণ, আমাদের শিক্ষকদের কঠোর পরিশ্রম। আমি নিজে অনেক রাত্রি পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের গাইড করি।” ১৪০ জন মাধ্যমিক দিয়েছে। সকল ছাত্র-ছাত্রীই কৃতকার্য হয়েছে। ৯২জন স্টার পেয়েছে। রাজ্যে নবম ও দশম  স্থান দখল করা দুজনেই পঞ্চম শ্রেণীতে মিশনে ভর্তি হয়েছিল। টার্গেট পয়েন্ট আর স্কুলের রফিকুল হাসানের প্রাপ্ত নম্বর ৬৮১, শতাংশের হিসাবে যা ৯৭.২৯%। রফিকুল এবারে রাজ্যে নবম স্থান অর্জন করেছে।

২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত এই আবাসিক বিদ্যালয়ের আর এক কৃতি তামান্না ফিরদৌস ৬৮০ পেয়ে সে এবার রাজ্যে দশম স্থান অর্জন করেছে।

কালিয়াচকের যদুপুরের বাসিন্দা রফিকুলের বাবা একজন ব্যবসায়ী ও মা গৃহবধূ। রফিকুল এই আবাসিক বিদ্যালয়ে ভর্তির পর থেকেই স্কুলের শিক্ষকদের অত্যন্ত প্রিয় এই ছাত্রটি সমস্ত পরীক্ষায় ধারাবাহিক ভাবে ভাল রেজাল্ট করত এবং তার স্কুলে সে প্রায় ফ্রি তেই পড়াশোনা করতো বলে টার্গেট পয়েন্ট আর স্কুলের সম্পাদক ও প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ উজির হোসেন টিডিএন বাংলাকে  জানিয়েছেন। অন্যদিকে মালদা জেলার কালিয়াচকের মোজামপুরের টার্গেট পয়েন্ট আর স্কুলের তামান্না ফিরদৌস  সাফল্যে সমগ্র এলাকা জুড়ে খুশির জোয়ার বইছে।