পছন্দের সেন্টারে সিট পড়েনি, দূর শিলিগুড়িতে সিএইচ‌এস‌এল পরীক্ষা পড়ায় অসন্তোষ মুর্শিদাবাদের কর্মপ্রার্থীদের

0

হামিম হোসেন মণ্ডল, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ : বৃহস্পতিবার শুরু হয় পশ্চিমবঙ্গ স্টাফ সিলেকশন কমিশন আয়োজিত কম্বাইণ্ড হাইয়ার সেকেণ্ডারী লেভেলের পরীক্ষা। বিপুল সংখ্যক কর্মপ্রার্থীরা এই চাকরি পরীক্ষায় বসার আবেদন করেছিলেন। দফায় দফায় তাঁদের প্রবেশ পত্র দিয়ে দফায় দফায় বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের ব্যবস্থা করে এস‌এসসি।

কিন্তু সমস্যা হল এবার মুর্শিদাবাদের বহু পরীক্ষার্থীর আসন ফেলেছে শিলিগুড়ীর বিভিন্ন কেন্দ্রে। মুর্শিদাবাদের খাগড়া ঘাট রোড থেকে মুষ্টিমেয় ট্রেন যাতায়াত করে সেখানে। যার দূরত্ব সাড়ে আট থেকে দশ ঘন্টা। আর এখানেই সমস্যায় পড়েছেন মুর্শিদাবাদের বহু কর্মপ্রার্থী। তাঁদের চোখে মুখে ক্ষোভ লক্ষ্যণীয়। দূরত্ব ও ভাড়ার কারণে পরীক্ষা কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা বেশি। ডোমকলের ইউনুস বিশ্বাসের পরীক্ষাকেন্দ্র‌ও শিলিগুড়ীতে ছিল। তিনি শিলিগুড়ী ঘুরে এসে টিডিএন বাংলাকে বলেন, পরীক্ষাকক্ষ প্রায় ফাঁকা ছিল, মুর্শিদাবাদ থেকে দুই-চারজন উপস্থিত ছিলাম।

উল্লেখ্য, গত একবছর আগেও এই পরীক্ষার কেন্দ্র পড়তো মুর্শিদাবাদেই, বহরমপুরে। গত বছর হয়েছিল কলকাতা। তাও যাওয়া যেত বলে অভিমত বিবেকানন্দ বিশ্বাসের।

এদিকে, পরীক্ষায় বসতে চেয়ে ফর্ম পূরণের সময় পছন্দের কেন্দ্র নির্বাচণের ক্রমান্নয়ে তিনটে বিকল্প ছিল। মুর্শিদাবাদে কেউ সেখানে নির্বাচণ করেন বহরমপুর, কলকাতা, বারাসাত বা মালদা। কিন্তু এই বিকল্প নির্বাচণে কোনো গুরুত্ব না দিয়েই একবারে ভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র দেওয়া হয়েছে  শিলিগুড়ী। তাহলে ফর্মে পরীক্ষা কেন্দ্র নির্বাচণের বিকল্প রেখে লাভ কী? রাখার কারণ কী? প্রশ্ন মুর্শিদাবাদের কর্মপ্রার্থীদের।