সংখ্যালঘু স্বীকৃতি অক্ষুণ্ন রেখে কমিশনের মাধ্যমে নিয়োগের দাবিতে স্বারকলিপি মাদ্রাসা শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী সমিতির

0
নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, নবান্ন: মাদ্রাসা শিক্ষা কেন্দ্রগুলির শিক্ষকদের সাম্মানিক বাড়ানো সহ সমস্ত শূন্য পদ পূরণ করার পাশাপাশি তাদের মাদ্রাসা পর্ষদের অর্ন্তভূক্ত করা দাবি জানিয়ে ডেপুটেশন দিল মাদ্রাসা শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী সমিতি। তাদের দাবি, সংখ্যালঘু স্বীকৃতি অক্ষুণ্ণ রেখে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে দ্রুত শিক্ষক নিয়োগের ব্যবস্থা করতে হবে।
মাদ্রাসা বিএড প্রশিক্ষণহীন শিক্ষক শিক্ষিকাদের বন্ধ থাকা ইনক্রিমেন্ট সচল করার দাবিতে শুক্রবার রাজ্য মাদ্রাসা শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী সমিতির এক প্রতিনিধি দল নবান্নে মাদ্রাসা শিক্ষা দপ্তর ও সংখ্যালঘু বিষয়ক কমিশনার জিএইচ ওবাইদুর রহমানের নিকট ডেপুটেশন দেন। এরপর একই বিষয় নিয়ে মাদ্রাসা শিক্ষা দপ্তর ও সংখ্যালঘু বিষয়ক সেক্রেটারি পিবি সালিম ও মাদ্রাসা পর্ষদের সভাপতি ড. আবু তাহের কামরুদ্দিনের সঙ্গে দেখা করেন তারা।
প্রসঙ্গত মেমো নং 759-SE (S) 2P-1/09 dt 30/07/2009 ও 516-SENT  (S) 2P-1/09 dt 29/03/2010 এর মাধ্যমে বিএড প্রশিক্ষণহীন শিক্ষক শিক্ষিকাদের ২০১২ সাল পর্যন্ত ইনক্রিমেন্ট চালু ছিল। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে যে সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকা বিএড প্রশিক্ষণ নেন নি, তাদের ইনক্রিমেন্ট বন্ধ হয়ে যায়।
সম্প্রতি মাননীয়া মূখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ঐ সীমা বৃদ্ধি হয়ে ২০১৫ সালের জুলাই মাস পর্যন্ত হয়েছে। সেই অনুযায়ী স্কুল শিক্ষা দপ্তর নির্দেশিকা জারি করেছে যার মেমো নম্বর 118-SE/S/10M/-29/16 dt 06/02/2018 ফলে স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকারা চলতি মাস (মার্চ) থেকে বন্ধ হওয়া ইনক্রিমেন্ট ফিরে পাচ্ছেন।
কিন্তু ঐ নির্দেশিকায় মাদ্রাসা শিক্ষা দপ্তরের নাম উল্লেখ না থাকায় মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষীকাগন এই সুবিধা পাচ্ছেন না এবং বিভিন্ন জেলার বিদ্যালয় পরিদর্শকরা দিচ্ছেন না। ফলে মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষীকাগন অসুবিধায় পড়ে গেছেন। তাই দ্রুত ইনক্রিমেন্ট সচল করার দাবিতে সমিতি সরব হন তারা।
মাদ্রাসা শিক্ষা দপ্তর ও সংখ্যালঘু বিষয়ক
কমিশনার সমস্যাগুলি দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। প্রতিনিধি দলে ছিলেন সমিতির রাজ্য সভাপতি মাওলানা রফিকুল ইসলাম, রাজ্য সম্পাদক সৈয়দ সাফাকাত হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক ও মুখপাত্র সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেন,আতিয়ার রহমান, সহিদুল ইসলাম প্রমুখ।