নিজস্ব প্রতিনিধি, টিডিএন বাংলা, কলকাতা: প্রিজাইডিং অফিসার রাজকুমার রায়ের হত্যার তদন্ত সহ একাধিক দাবীতে শিক্ষকদের বিরাট মিছিল হল কলকাতায়। মিছিল বহু দেখেছে মহানগরী। কিন্তু এমন অরাজনৈতিক ঐক্যবদ্ধ শিক্ষক সমাজের মিছিল শেষ কবে হয়েছে মনে করা কঠিন। না, কোনো ডিএ, পে কমিশন বা অন্য কিছু চাওয়া পাওয়ার দাবীতে নয়। এবারের পঞ্চায়েত ভোটে অস্বাভাবিক ভাবে মৃত প্রিজাইডিং অফিসার তথা মাদ্রাসা শিক্ষক রাজকুমার রায়ের মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের দাবিতে এদিন বিক্ষোভে অংশ নেয় শিক্ষকরা। ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও দাবি জানানো হয়।
রাজকুমারের মৃত্যুর প্রতিবাদে রায়গঞ্জে বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার জন্য গ্রেপ্তার হওয়া দুজন শিক্ষকের  অবিলম্বে মুক্তির দাবীতে এদিন মুখরিত হল কলকাতা মহানগরী। বেলা ২ টা থেকে সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে শুরু হয় এই প্রতিবাদী মিছিল। কঠোর রৌদ্রকে উপেক্ষা করে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা অগণিত শিক্ষক শিক্ষিকা পা মেলান এই প্রতিবাদ কর্মীসূচিতে।
 
মুর্শিদাবাদের শিক্ষক জানে আলম সাহেব বলেন, প্রিসাইডিং অফিসার রাজ কুমার রায় হত্যা খুবই দুর্ভাগ্য জনক ও নিন্দনীয়। এটা আমার ক্ষেত্রেও ঘটতে পারতো। কিছু বলার জন্য ভাষা খূঁজে পাচ্ছি না। এক সৎ ও নির্ভীক শিক্ষককে হারালাম। উনার আত্মার শান্তি কামনা করি। সঠিক তদন্ত না করে এই মর্মান্তিক হত্যা কে যারা আত্মাহত্যা বলছে তাদের ধিক্কার। উনার পরিবারের যথার্থ ক্ষতি পূরন ও ন্যায় বিচার কামনা করি।
রায়গঞ্জের প্রতিবাদী শিক্ষক অনিরুদ্ধ সিংহ তার বক্তব্যে রাজকুমার রায় হত্যায় সঠিক তদন্তের জন্য সিবিআই তদন্তের দাবী তোলেন। একই সাথে উপস্থিত বক্তারা ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া প্রতিবাদী দুই শিক্ষকের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তিরও দাবী তোলেন। আগামীতে যথেষ্ট নিরাপত্তা ছাড়া কেউই আর ভোটের কাজে যাবেন না, এমনই অংগীকার ছিল উপস্থিত শিক্ষক মহলের।