বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবিতে ফোরামের ডাকা পদযাত্রায় সামিল শিক্ষার্থী থেকে বুদ্ধিজীবিরা

0

সোহেল রানা, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: মুর্শিদাবাদের মতো বড়ো জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় না থাকার যন্ত্রণা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে জেলাবাসি। বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি আজকে নতুন নয়, এই দাবি দীর্ঘদিনের। তাসত্বেও সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে নি জেলাবাসির পাওনা। অন্যদিকে দেখা যায় কোন একটা জেলাতে বিশ্ববিদ্যালয় থাকলেও সেখানে আবার বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হচ্ছে ফলে জেলাবাসি ক্ষোভে ফুঁসছে। এই পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবিতে আজকে পথে নামে  ফোরাম ফর ইউনিভির্সিটি ইন মুর্শিদাবাদ নামে একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। 

এই সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে ব্যাপক ভাবে  প্রচার করে। সংগঠনের সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবি  মোজাম্মেল হক স্কুলে স্কুলে প্রচার করে জনমত গঠন করেন।  জনগনের পক্ষ থেকে বিপুল সাড়া মেলে।


অরাজনৈতিক ভাবে প্রথম ধাপে ফরাক্কা থেকে জঙ্গিপুর পদযাত্রার ডাক দিয়েছিলেন মোজাম্মেল হক এবং সমাজসেবি শুভঙ্কর সরকার। এই পদযাত্রা জনসাধারণের হার্দিক অভিনন্দন পাওয়ায় তারা দ্বিতীয় ধাপে পদযাত্রার ডাক দিয়েছিলেন । সেই ডাকে সাড়া মিলেছে বিপুল। যার  আজকে পদযাত্রার উপস্থিতি প্রমান করে।

এফইউএম এর ডাকে দুইদিন ব্যাপী পদযাত্রার আয়োজন করা হয়। যার অংশ রুপে আজ শুক্রবার প্রথম দিনের পদযাত্রা সম্পন্ন হয়। পদযাত্রা শুরু হয় জঙ্গিপুর সদরঘাট থেকে শেষ হয় রঘুনাথগঞ্জের বড়জুমলায়। রবিবার পদযাত্রা শুরু হবে বড়জুমলা থেকে লালগোলা এম এন আকাডেমি পর্যন্ত ।

অরাজনৈতিক সংগঠন এফইউএম এর পদযাত্রায় পা মিলিয়েছেন বুদ্ধিজীবি থেকে শিক্ষানুরাগীদের অনেকাংশ। এছাড়া শিক্ষক, ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন স্তরের কর্মীরা। শিক্ষার্থীদের উপচে পড়া লম্বা লাইন চোখে পড়ে।  এই পদযাত্রায় সামিল হয়েছিলেন ওয়েলফেয়ার পার্টির নেতা মাষ্টার ওয়াকিল আহমেদ, পপুলার ফ্রন্টের নেতা সহ  বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এদিকে পদযাত্রায় সাধারণ মানুষ স্বত:স্ফুর্ত ভাবে অংশগ্রহন করায় জেলাবাসীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ফোরামের সভাপতি আইনজীবি মোজাম্মেল হক।