চলন্ত ট্রেন থেকে ছিটকে পড়লেন যুবক, শতাধিক দর্শকদের মাঝে ত্রাতার ভূমিকায় সেখ মুজাহিদ

0

সামাউল্লাহ মল্লিক, টিডিএন বাংলা, বাউড়িয়া : বছর খানেক আগে রাস্তায় পড়ে থাকা এক মুমূর্ষু ব্যক্তির সাহায্য করে শিরোণামে এসেছিলেন তিনি। আবারও সেই একইধরনের ঘটনায় ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ সেই লড়াকু যোদ্ধা। বর্তমান সমাজের বিবেকহীন মানবজাতির কাছে তিনি প্রমাণ করে দিচ্ছেন মানবতা আজও বেঁচে আছে। দিনের পর দিন পরোপকারী হিসেবে সুপরিচিতি লাভ করা এই যুবক হলেন ফ্র‍্যাটারনিটি মুভমেন্ট হাওড়া জেলা শাখার কনভেনর সেখ মুজাহিদ। সম্ভ্রান্ত ব্যবসায়ী তথা সমাজসেবী মুজাহিদের বাড়ি হাওড়ার বাউড়িয়ায়।

শুক্রবার বিকালে বাউড়িয়া স্টেশনের কাছে চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে যান এক যুবক। সেসময় ১০০ থেকে ২০০ লোক সেখানে উপস্থিত থাকলেও কেউ সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেনি। রেল ক্রসিংয়ে দাঁড়িয়ে থাকা সেখ মুজাহিদ তৎক্ষনাত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন এবং অটোরিক্সায় করে পাঁচলা সিএমসি হাসপাতালে ভর্তি করেন। মুজাহিদের প্রশংসনীয় কাজে তাঁকে সাহায্য করেন স্থানীয় ৩ জন লোক। তারপর সেখান থেকে তাঁকে উলুবেড়িয়া হাসপাতালে ট্রান্সফার করা হলে, এম্বুলেন্স করে নিয়ে যাওয়া হয় সিটি স্ক্যান করার জন্য। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপস্থিত জনতা হতবাক হয়ে ঘটনা দেখছিল। হঠাতই তাঁরা মুজাহিদকে এগিয়ে আসতে দেখেন আহতকে সাহায্য করার জন্য।

ওই যুবকের নাম হাসানুর মল্লিক (৩০)। উলুবেড়িয়ার রাজখোলা এলাকায় তাঁর বাড়ি বলে জানা গিয়েছে। কাজের খোঁজে দিল্লি যাচ্ছিল সে। রোগীর অবস্থা বেগতিক দেখে তাঁকে পিজি হাসপাতালে ট্রান্সফার করে দেওয়া হয়েছে। শুধু মুজাহিদ নন, পরে এই ঘটনার খবর পেয়ে ফ্র‍্যাটারনিটি মুভমেন্ট উলুবেড়িয়া ব্লক ২ এর কনভেনার ইফতেখার আলী মল্লিক হাসপাতালে চলে আসেন দেখা করতে। এই ঘটনার পর সেখ মুজাহিদ টিডিএন বাংলাকে বলেন, ‘মানুষের সাহায্যার্থে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। ধর্মের পার্থক্য না করে মানুষ হিসেবে আমাদের করণীয় কাজ করা উচিত।’