আজ জাতীয় প্রতারণা দিবস : আব্দুল মোমেন

0

জিল্লুর রহমান, ভাঙ্গড়, টিডিএন বাংলা : আজ ছিল নোট বন্দীর বর্ষপূর্তি। গত বছর ঠিক এই দিন রাত ১২টা থেকে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল বলে ঘোষনা দিয়েছিলান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই নোট বন্দীর সুফল-কুফল সম্বন্ধে জানতে চাওয়া হয় সারা বাংলা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের সহ সম্পাদক তথা দক্ষিণ ২৪ পরগণা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের জেলা সম্পাদক আব্দুল মোমেনের কাছে। তিনি বলেন, “এটাকে কালো টাকার উপর সার্জিকাল স্ট্রাইক বলা হলেও আদতে এটা একটা প্রতারণা।

নরেন্দ্র মোদি নিজের ঘোষনা মত ৫০ দিনের মধ্যে কালো টাকা উদ্ধার করতে না পেরে ব্যর্থতা ঢাকতে বললেন যে, আসলে বিমুদ্রাকরণের জন্য নোট বন্দী করা হয়েছে।

তাঁর সরকার দাবি করে, নোট বাতিলের কারণে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ কমে গেছে। এই দাবি সম্পুর্ণ ভিত্তিহীন ও প্রতারণা। কারণ কাশ্মীরে ৩৮ শতাংশ সন্ত্রাসী কার্যকালাপ বেড়ে গেছে। দেশের সেনা জওয়ানেরা মাওবাদীদের হাতে মরে চলেছে।

নোটবন্দীর ফলে দেশের ছোট মাঝারি ব্যবসায়ীরা মার খেয়েছে। দেশের সাধারণ উন্নয়নের হার কমেছে। একটাও কালো টাকা উদ্ধার হয়নি। বরং নতুন নোট ছাপে 21 কোটি টাকা অহেতুক ব্যয় হয়েছে। সুতরাং এটাকে প্রতারণা ছাড়া অন্য কিছু বলা যায় না।” তিনি আরও বলেন যে, “ক্যাশলেস করার নামে যে নোট বন্দী করা হয়েছে সেখানেও ধোকা দেওয়া হয়েছে। যেখানে এখনও হাজার হাজার গ্রামে ইন্টারনেট সহ বিদ্যুৎ পরিসেবা নেই সেখানে ক্যাশলেস একটি প্রতারণার ফাঁদ।”

tdn_bangla_ads