ডোমকলে ধারালো অস্ত্রের কোপ প্রতিবন্ধী কে, ঘটনাস্থলেই মৃত্যু প্রতিবন্ধীর

0

কিবরিয়া আনসারী, টিডিএন বাংলা, মুর্শিদাবাদ: বেশ কিছু দিন থেকেই প্রতিবন্ধী বড়ো ছেলের অত্যাচার সহ্য করছে পরিবারের লোকজন। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে মাঝে মাঝেই মারধোর করেন প্রতিবন্ধী জমশেদ সেখ কে। এমনকি তার অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে চেন দিয়েই বেঁধে রাখা হত বাড়িতে। আজ অত্যাচার চরমে উঠলে তাকে পিটিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করেন পরিবারের লোকজন বলে দাবী। মৃতের নাম জমশেদ মন্ডল (৩২)। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাত ৮ টা নাগাদ ডোমকল থানার কাঁটাকোপড়া খিদিরপাড়া এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বেশ কিছু দিন থেকেই পাগল হয়ে যায় জমশেদ। মাঝে মাঝেই পরিবারের লোকজন কে মারধরে করে সে। হঠাৎ আজ বাবা কে মারধোর করতে থাকেন সে। পরিবারের লোকজন তাকে বাঁধা দিলে পাল্টা সে তাদের অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। অস্ত্রের আঘাতে আহত হয় বাবা ও ভাই। তারা এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তারপরেই পরিবারের রাগ চরমে ওঠে। রাগ সামলাতে না পেরে রড়, বাঁশ ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় আঘাত করা হয়। ঘটনাস্থলেই মৃত হয় জমশেদ মন্ডলের।

স্থানীয় বাসিন্দা রেন্টু সেখ বলেন, কিছুদিন থেকে পাগল হয়ে যায় জমশেদ। মাঝে মাঝেই একে ওকে মারধোর করে। আজ শুনলাম বাবা কে মারধর করছে। পরিবারের আত্মীয়রা রাগ সামলাতে না পেরে পাল্টা তাকে অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। চিৎকার শুনে ছুটে এসে দেখি উঠুনে রক্তমাখা অবস্থা পড়ে রয়েছে জমশেদ।

এক পুলিশ আধিকারীক বলেন, আমরা মৃত দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছি। কিভাবে মৃত্যু হল তা তদন্ত করা হচ্ছে।