শ্লীলতাহানির সমর্থন না করায় কি ঝাঁটা দেখানো হল সিদ্দিকুল্লাহকে?

0
সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর অনুগামীরা বলছেন, ঘটনার সূত্রপাত বুধবার সন্ধ্যায়। অভিযোগ, মঙ্গলকোটের কাসেমনগরে বৈরাগ্যচাঁদের মেলা চলাকালীন প্রকাশ্যে এক মহিলার ‘শ্লীলতাহানি’ করে একদা মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ তৃণমূল ব্লক সভাপতি অপূর্ব চৌধুরীর এক অনুগামী। এরপর উপস্থিত জনতা এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করে। আরও অভিযোগ,এই ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয়ে রাতে পেঙ্গা শেখ নামে এক প্রতিবাদকারীকে তুলে নিয়ে যায় অপূর্ব চৌধুরীর অনুগামীরা। প্রতিকার চেয়ে গ্রামবাসীরা মঙ্গলকোট থানাকে অবগত করলেও পুলিশ তাঁদের কথায় কর্ণপাত করতে রাজি হয়নি বলে অভিযোগ।

সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী কাসেমনগরে পৌঁছালেও রাজ্যের একজন মন্ত্রীকে লক্ষ্য করে ঝাঁটা দেখানোর ঘটনা রাজ্য রাজনীতির চর্চার কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। চৌধুরী সাহেবের ঘনিষ্ট একজন বলছেন, এই ধরনের সংগঠিত বিক্ষোভ পূর্ব পরিকল্পনা ব্যতীত সম্ভব নয়। যেহেতু সিদ্দিকুল্লাহর কাসেমনগর সফরের কর্মসূচী গতকাল রাতেই গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। তাই রাজ্যের একজন মন্ত্রীকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানোর পরিকল্পনা থেকে স্থানীয় পুলিশ-প্রশাসন অবগত না থেকে পারে না। তাহলে ওখানে পুলিশ এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে দিল কেন বলে প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা।
head_ads