ভারতকে ফ্রী ইন্টারনেটের দেশে পরিণত করতে চাই গুগল

সেখ শানাওয়াজ আলি, টিডিএন বাংলা : ভারতে যত বেশি সম্ভব মানুষকে অনলাইনের আওতায় আনতে এবং ইন্টারনেট পরিষেবার সুবিধা পৌঁছে দিতে মার্কিন তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা গুগল কিছুদিন আগেই চালু করল গুগল স্টেশন। গুগলের ১৮ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে গুগল ফর ইন্ডিয়া প্রকল্পের আওতায় সার্বজনীন  ওয়াই-ফাই প্ল্যাটফর্ম গুগল স্টেশন ও ইউটিউব গো লঞ্চ করল। এর আগেই ভারতীয় রেলের সঙ্গে জোট বেঁধে রেল স্টেশনগুলিতে ওয়াই-ফাই পরিষেবা দেওয়া শুরু করেছে মার্কিন সংস্থাটি। আর এ বার যেখানে অনেক মানুষ একসঙ্গে জড়ো হন, (যেমন- শপিং মল, কাফে, বাসস্টপ, বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি) সেই সব জায়গাতেও নেট পরিষেবা দিতে গুগ্‌ল স্টেশন আনল তারা।

তাদের আনা পরিষেবাগুলির মধ্যে রয়েছে, গুগ্‌ল স্টেশন, ইউটিউব গো ভিডিও অ্যাপ এবং ক্রোম ব্রাউজারের (ইন্টারনেটে তথ্য খোঁজার সার্চ ইঞ্জিন) নতুন সংস্করণ। গুগ্‌লের দাবি, টুজি সংযোগের ক্ষেত্রে নতুন ক্রোম ব্রাউজারে দ্বিগুণ গতিতে পেজ লোড (নেট-এ দেখানো) হবে। ফলে বাঁচবে খরচও। এ ছাড়াও টুজি প্রযুক্তি চালিত ফোনে দ্রুত গুগ্‌ল প্লে চালানোর সুবিধা এনেছে তারা। এছাড়াও গুগল ডুয়ো ও allo পরিষেবার ঘোষণাও করছে তাঁরা।

গুগলের ভাইস প্রেসিডেন্ট সিজার সেনগুপ্ত জানিয়েছেন, প্রতি সেকেন্ডে তিনজন ভারতীয় অনলাইনে আসেন। এবার এক্ষেত্রে তাঁদের অভিজ্ঞতা যাতে সুন্দর এবং তাঁদের কাজের ক্ষেত্রে সহায়ক হয়, তা নিশ্চিত করাই তাঁদের লক্ষ্য।  কিন্তু আগে থেকেই যাঁরা ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত এবং আগামী দিনে যে প্রচুর সংখ্যক মানুষ এর সঙ্গে যুক্ত হবেন, তাঁদের প্রয়োজন ও প্রত্যাশা ভিন্ন। শুধু বর্তমান ব্যবহারকারীরা নন, আগামী দিনেও যাতে মানুষ হাতের মুঠোতেই দ্রুতগতির নেট পেতে পারেন, তার জন্য নিত্যনতুন পণ্য আনতে চায় এ সংস্থা। সিজার সেনগুপ্ত বলেন, ভারতে নবীন প্রজন্মের হাত ধরে তৈরি হচ্ছে নেট ব্যবহারের নতুন ধারা। সেই বাজার ধরতে আঞ্চলিক ভাষাকেই পাখির চোখ করছে তাদের সংস্থা। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের মধ্যেই সদ্য বাজারে আসা নিজেদের অ্যালো মেসেজিং অ্যাপে হিন্দিতে কথা বলার সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে গুগ্‌ল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *