মারিন চিলিচকে উড়িয়ে অষ্টম উইম্বলডন জয় ফেডেরারের

স্পোর্টস ডেস্ক, টিডিএন বাংলা : নাহ, এতোটা বোধ হয় তিনিও আশা করেননি। বয়স হয়ে গেছে ৩৫, সাত বছরের ছোট প্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে লড়াইটা অন্তত একটু হলেও জমার কথা। কিন্তু শেষ কবে এত সহজে জিতেছেন, ফেডেরার নিজেও বোধ হয় মনে করতে পারবেন না। ক্রোয়েশিয়ার সপ্তম বাছাই মারিন চিলিচকে ৬-৩, ৬-১, ৬-৪ গেমে উড়িয়ে দিয়েই পেলেন রেকর্ড অষ্টম উইম্বলডন। আর সেই জয়ের পথে পুরো টুর্নামেন্টে হারেননি একটা সেটও।
সেন্টার কোর্টে জমজমাট একটা ফাইনালের যারা অপেক্ষায় ছিলেন, তাদের আশা আজ পূরণ হয়নি। শুরুতে তাও একটু লড়াইয়ের চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু প্রথম সেটে ফেডেরার ব্রেক করার পর আর দাঁড়াতেই পারেননি। এর মধ্যেই অবশ্য একটা ক্রস কোর্ট খেলতে গিয়ে ব্যাথা পেয়েছেন গোড়ালিতে, প্রথম সেটের শেষে ভেঙে পড়েছিলেন কান্নায়ও। তখনই বোঝা যাচ্ছিল, ব্যথাটা গুরুতর। উইম্বলডনের ১০০ বছরের ইতিহাসে ফাইনালে কেউ অবসর নেয়নি। সেরকম একটা সম্ভাবনা তখন উঁকি দিচ্ছিল দিগন্তে।
শেষ পর্যন্ত অবশ্য সেটি হয়নি। তবে চিলিচ সেই যে খেই হারালেন, আর সেটা ফিরেই পেলেন না। পরের সেটে মাত্র একটি গেম জিততে পারলেন, ফেদেরারকে তাঁর সেরাটুকুও দিতে হয়নি। একের পর এক আনফোর্সড এরর করছিলেন চিলিচ, বোঝাই যাচ্ছিল মনোবলটা গুড়িয়ে গেছে।
তৃতীয় সেটে এসে একটু লম্বা বিরতি নিলেন। এবার মনে হচ্ছিল, একটু লড়াই করতে পারেন। প্রথম ছয় গেম ভাগাভাগি করে নিলেন দুজন। কিন্তু ফেডেরার যে তখন ছন্দ পেয়ে গেছেন। চিলিচকে ব্রেক করে এগিয়ে গেলেন, এবারও নিজের ভুলের খেসারত দিলেন এই ক্রোট। পরে আর ফেডেরারের সার্ভ ব্রেকই করতে পারলেন না। রেকর্ড ১৯তম আর অষ্টম উইম্বলডনের ট্রফি পেলেন চোখের জলেই।