আর কত বছর তদন্ত হলে সারদা কান্ডে ক্ষতিগ্রস্তরা ক্ষতিপূরণ পাবে? – মনসা সেন

নিজস্ব সংবাদদাতা,টিডিএন বাংলা,কলকাতা: মানুষ সমস্যায় আছে।অথচ সারদা, রোজভ্যালি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকার পুরো নাটক করছে। সাধারণ মানুষের দুর্দশা নিয়ে বৃহস্পতিবার এক প্রেস রিলিজ দেয় ওয়েলফেয়ার পার্টি।সেখানে সিবিআই এর কার্যকলাপ ও নোট বাতিল ইস্যুনিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কঠোর সমালোচনা করা হয়।ওয়েলফেয়ার পার্টির পশ্চিমবঙ্গ শাখার রাজ্য সভাপতি মনসা সেন সিবিআই এর এই হটাৎ তৎপরতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেন, “সিবিআই এতদিন কোথায় ছিলো? নোট বাতিলের বিরুদ্ধে আন্দোলন হচ্ছে বলেই কি এই গ্রেপ্তার? তাহলে সিবিআই কি বোঝাতে চাইছে? সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন হলেই তদন্ত হবে না হলে ছাড়?”অন্যদিকে তিনি বিজেপি সরকারকে কটাক্ষের সুরে বলেন, “আসলে আজ বিজেপি যেটা বলতে চায় তা হল-আমার হয়ে থাকলে রেল মে, বিরোধীতা করলে জেল মে।”
মনসা বাবু প্রশ্ন তোলেন,প্রতিহিংসা মূলক এই রাজনৈতিক কর্মকান্ডে সাধারণ মানুষের কি কোনও লাভ হবে ? ক্ষতিগ্রস্তরা কি ক্ষতিপূরণ পাবে ?সিবিআই বা সরকার কি ক্ষতিগ্রস্ত  সাধারণ মানুষদদের জন্য কিছু করবে?” ওয়েলফেয়ার পার্টির ওই নেতার মতে,একটা দল আরেকটা দলের উপর প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে কেবলমাত্র এই কাজ গুলো করছে। যখনই মমতার মোদীর বিরুদ্ধে আন্দোলন থামাচ্ছে, ঠিক তখনই সিবিআই সব তদন্ত বন্ধ করে দিচ্ছে, আর যখন মোদীর বিরুদ্ধে আন্দোলনে যাচ্ছে তখনই আবার তদন্ত শুরু হচ্ছে! এতে কোনো  সমস্যার সমাধান হচ্ছে না,সমস্যা  অন্ধকারেই থেকে যাচ্ছে। সাধারণ মানুষের টাকা নয়ছয় হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষ টাকা পাচ্ছে না। আর তদন্তের নামে মানুষকে ঠকানো হচ্ছে। এই তদন্ত থেকে সাধারণ মানুষের কোনো লাভ হবে না। মমতা এখন ডিমোনিটাইজেশনের বিরুদ্ধে হইহই করছে, অতএব একে প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে থামাতে হবে এটাই বিজেপির মুল কাজ।কিন্তু গরিব মানুষের টাকা চলে গেছে, গরিব মানুষ শেষ হয়ে গিয়েছে,তা নিয়ে কোনো হেলদোল নেই। রোজভ্যালির টাকাতে সব বড়ো বড়ো দলের নেতারা জড়িয়ে আছে।সাধারণ মানুষের কাছে এটা স্পষ্ট হয়ে গেছে যে,বড়ো বড়ো দলগুলির নেতারা দুর্নীতিগ্রস্থ।তাই মানুষ এর থেকে মুক্তি চাই।”উল্লেখ্য পরিকল্পনা বিহীন নোট বাতিল ইস্যুতে ওয়েলফেয়ার পার্টি ইতিমধ্যে দেশ জুড়ে আন্দোলন শুরু করেছে।

মন্তব্য করুন -